আজ ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১:৪৯

বার : বৃহস্পতিবার

ঋতু : হেমন্তকাল

চুনারুঘাট উপজেলার পাইকপাড়াসহ ৪ টি ইউনিয়ন বন্যার পানিতে প্লাবিত ।

 

এন আই সুবেল চুনারুঘাট প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাসের নামক মহামারি এই অবস্থায় হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার পাইকপাড়া ইউনিয়নের প্রায় ১৫টির অধিক গ্রাম পাহাড়ি ঢলে বণ্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। বণ্যার পানিতে ক্ষতি হয়েছে কাঁচা ঘর-বাড়ি, মাঠে থাকা পাকা ধান, সবজি জাতীয় বিভিন্ন ধরনের ফসল, পুকুরের মাছ, রাস্তা-ঘাট, ব্রীজ, গরু-ছাগল, হাঁস-মুরগি সহ বেশ কিছুর। বৃষ্টির পানি প্রবেশ করেছে প্রায় ঘরে ঘরে। ঘরে বসেই সাঁতার কাটেছে মানুষ। হাড়ি পাতিল ধৌত করতে যেতে হচ্ছে না পুকুর কিংবা টিউবওয়েলে। এমনি অবস্থা দেখা দিয়েছে চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ, দেওরগাছ, পাইকপাড়া ও শানখলা ইউনিয়নে। পাইকপাড়া ইউনিয়নের এক জনৈক ব্যাক্তি সরকারের কাছে সহযোগিতা চেয়ে তিনি বলেন, আমাদের গরু-ছাগল, হাঁস-মুরগি, রাস্তা-ঘাট, পাকা ধান, সবজি বাগান, ব্রীজ সহ নানা প্রকার ক্ষতি হয়েছে। আমরা আমাদের ছেলে-মেয়ে নিয়ে খুব দুশচিন্তায় আছি।

সংকট দেখা দিয়েছে শুকনা খাবাবের। আজ দু’দিন ধরে পানি আছে, দিনদিন পানি আরো বেড়েই চলছে। এই বণ্যার পানি আরো সপ্তাহ ১৫দিন থাকতে পারে বলে তিনি ধারনা করছেন। উপজেলা প্রশাসন ও চেয়ারম্যানকে পাশে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। পাইকপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান শামীম জানান, আমি এই ভয়াবহ পরিস্থিতির কথা উপজেলা প্রসাশনকে জানিয়েছি। ইতি মধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এসিল্যান্ড এলাকাটি পরিদর্শন করেছেন। এবং উপজেলা প্রশাসন ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে আছেন বলে আশ্বস্ত দিয়েছেন। তিনি (চেয়ারম্যান) সর্ব সময় জনগনের পাশে থাকবেন বলে জানিয়েছেন । পাইকপাড়া ইউনিয়ন পরিদর্শন করতে গিয়ে ব্যারিষ্টার সৈয়দ সাইদুল হক সুমন বলেন, চুনারুঘাটের অভিভাবক, মাননীয় সাংসদ ও প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলীর কাছে আহ্বান জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার মানুষের জন্য কোন কিছুর ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য।

সাথে সাথে জেলা প্রশাসক ও নির্বাহী অফিসারের কাছেও আহ্বান জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। সোস্যাল মিডিয়ায় উনার ভিডির চিত্রের মাধ্যমে তোলে ধরেছেন বণ্যার পানির ভয়াবয় অবস্থা। আরো কয়েক ঘন্টা বৃষ্টি হলে মারাত্মক ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি হতে পারে। বর্তমানেও নৌকা নিয়ে চলাচলের উপক্রম হয়েছে এলাকা গুলোতে। পাকা রাস্তা ভেঙ্গে প্লাবিত হচ্চে বন্যার পানিতে। দ্রুত পানি নিস্কাসনের ব্যবস্থা না করলে বিরাট প্রকারে ক্ষতি হওয়ার আশঙ্খা মুখে রয়েছে ইউনিয়ন গুলো।এ সময় উপস্থিত ছিলেন এত এলাকার ক্ষতি গ্রস্তহ সাধারণ মানুষ ও জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা প্রসাশন প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category