আজ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১:০১

বার : বৃহস্পতিবার

ঋতু : শরৎকাল

শোকাবহ আগষ্টে আবেগাপ্লুত আওয়ামী লীগ সভাপতি

রাজা মিয়া বিশেষ প্রতিনিধিঃ

দয়ামীর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হাজী হিরন মিয়া ৭৫ এর ১৫ ই আগষ্টের কথা স্মরণ করে হঠাৎ যেন আবেগাপ্লুত হয়ে গেলেন।
তিনি আজ ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট এর কালরাতকে স্মরণ করে দৈনিক সিলেট নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ওই রাত্রির বিবরণ বলতে গিয়ে নিজেই যেন ভেঙ্গে পড়েন।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি তিনি বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিশংস করার জন্য হায়েনারা পূর্ব থেকেই উৎপেতে ছিল।
বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহানা বিদেশে থাকা কারণে প্রাণে বেঁচে ছিলেন।
কুলের শিশু পর্যন্ত এদের হাত থেকে রক্ষা পায়নি। রক্তে রঞ্জিত হয়ে গিয়েছিল বঙ্গবন্ধুর বসবাসরত তৎকালীন বাসভবন।

ইতিহাসের কলঙ্কিত অধ্যায় ১৯৭৫ সালের আগস্ট ১৫ ই আগস্ট। এই হত্যাকান্ডের সাথে যারা জড়িত তাদের বিচার হয়েছে। যারা বিচারের আওতায় এখনো আসেনি তিনি আশা রেখে বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ঐতিহ্য রক্ষা করে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করতে বঙ্গবন্ধুর খুনি ও তাদের সহযোগীদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকল উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ত্বরান্বিত করতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সর্বক্ষণ সুসংগঠিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হৃদয়ে লালন করে আওয়ামী লীগের হাল ধরে রাখবেন বলে ও অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি ছাত্র জীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবীত হয়ে ছাএলীগ থেকে শুরু করে বর্তমানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে আদর্শিত হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে দীর্ঘ দীর্ঘ ১৪ বছর যাবত আওয়ামীলীগকে সংগঠিত করে রেখেছেন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিতপ্রাণ হাজী হিরন মিয়া সংগঠনের সভাপতি থেকে নিরলসভাবে কাজ করে তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠনকে সুসংগঠিত করে রাখতে পেরেছেন বলে ও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category