আজ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১১:১৫

বার : সোমবার

ঋতু : শরৎকাল

জগন্নাথপুরে বিপুল পরিমান ভারতীয় নাসির বিড়ির চালান ও বহনকারী কারসহ আটক-২

জগন্নাথপুর(সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থানার সামন দিয়ে নিষিদ্ধ ভারতীয় নাসির বিড়ির চালান নিয়ে যাওয়ার সময় একটি কারসহ দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

আজ(২৭ আগস্ট) বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, জগন্নাথপুর পৌরসভার হবিবনগর এলাকায় অস্থায়ী জগন্নাথপুর থানা ভবনের সামনের জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ-আঞ্চলিক মহাসড়ক দিয়ে একটি কারে ( যার নং ঢা-মেট্রো-গ-১১-৯১৪১) করে বিপুল পরিমান ভারতীয় নাসির বিড়ি নিয়ে যাওয়ার সময় জগন্নাথপুর থানা পুলিশ গাড়িটি আটক করে। এসময় গাড়িতে থাকায় দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন সিলেটের ওসমানিনগর থানার সিকন্দরপুর গ্রামের মতৃ মতিন মিয়ার ছেলে ইমন মিয়া (৩০) ও বালাগঞ্জের ইলাশপুর গ্রামের মৃত আজাদ মিয়ার ছেলে ফজলুর রহমান (২৮)। আটক ব্যক্তিরা পুলিশকে জানায়, তারা ওসমানিনগর থেকে জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জ বাজারের উদ্যেশ্যে ২ লাখ ১০ হাজার পিছ ভারতীয় বিড়ির চালান নিয়ে যাচ্ছিল বলে অভিযানে অংশ নেয়া জগন্নাথপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামান মনি জানিয়েছেন। জব্দকৃত বিড়ির বাজার মূল্যে তিন লাখ টাকা বলে তিনি জানান।

জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুুতি চলছে। ## ছবি সহ-

জগন্নাথপুর উপজেলায় ৬টি গরু চুরি- নিঃস্ব কৃষক

জগন্নাথপুর(সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের সনুয়াখাই গ্রাম থেকে এক রাতে কৃষকের ৬টি গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। শুকুর আলী নামের ওই কৃষক গরু চুরি হওয়ায় নিঃস্ব হয়ে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। গরু উদ্ধারে তিনি পুলিশের শরণাপন্ন হয়েছেন। গতকাল বুধবার (২৭ আগস্ট) বিকেলে জগন্নাথপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

জগন্নাথপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাখায়াত হোসেনজগন্নাথপুরে এক বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। চোর তালা ভেঙে কৃষকের গোয়ালঘর থেকে সবগুলো গরু চুরি করে নিয়ে গেছে। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি। চোর ধরে কৃষকের গরু উদ্ধারে আমরা কাজ করছি।

কৃষক শুকুর আলী বলেন, প্রতিদিনের মতো গত রোববার রাতে বসতঘরের পাশের গোয়ালঘরে ৬টি গরু তালাবদ্ধ করে ঘুমিয়ে পড়ি। পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি তালা ভাঙা আর আমার ৬টি গরু নেই।

তিনি বলেন, এই ৬টি গরুই আমার সম্বল ছিল। সব হারিয়ে আমি নিঃস্ব হয়ে পুলিশের শরণাপন্ন হয়েছি।

জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, কৃষকের গরু চুরির খবর পেয়েছি। পুলিশ বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category