আজ ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১১:২৭

বার : শনিবার

ঋতু : শীতকাল

কুলাউড়ার টিলাগাঁও রেল স্টেশনটি পুনরায় চালুর দাবি এলাকাবাসীর।

 

মোঃইকবাল হোসেন মাহদী স্টাফ রিপোর্টার কুলাউড়াঃ

দীর্ঘদিন ধরে স্টেশন মাস্টার সহ প্রয়োজনীয় লোকবল না থাকায় কুলাউড়ার টিলাগাঁও রেল স্টেশনটির ভবনগুলো পরিত্যক্ত পড়ে আছে। এর ফলে এসব স্থাপনা অবৈধ দখলদারদের হাতে চলে গেছে। তাছাড়া স্টেশনের দ্বিতল ভবনটি সন্ধ্যারাত হলেই মাদকসেবীদের ও অসামাজিক কার্যকলাপের নিরাপদ আস্তানা হয়ে যায়।

টিলাগাঁও রেল স্টেশনটি গত ২০০৯ সালের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে। এর আগে রেলওয়ের জনবল সংকটের কারণে একাধিকবার স্টেশনটি বন্ধ ছিল। গত ২০০৯ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রায় ১ মাসের বেশি সময় স্টেশনটি বন্ধ থাকার পর এ স্টেশনে একজন স্টেশন মাস্টার নিয়োগ দেওয়া হয়। কিন্তু ওই মাস্টার যোগ দেওয়ার ৩-৪ দিনের মধ্যে তাকে আবারো প্রেষণে বদলি করা হয় একই সেকশনের শমসেরনগর স্টেশনে। মূলত এর পর থেকেই বন্ধ রয়েছে স্টেশনটি।

ব্রিটিশ শাসনামলে চা বাগান ও এলাকার জনসাধারণের সুবিধার্থে এ স্টেশন স্থাপন করা হয়। বি-গ্রেডের স্টেশন টিলাগাঁওয়ে শুধু চা বাগানের মালামাল বুকিং করেই প্রতিদিন সরকারের হাজার হাজার টাকা রাজস্ব আয় হতো। অথচ বর্তমানে টিলাগাঁও স্টেশনটি অরতি অবস্থায় পড়ে আছে।শুধু তাই নয় লোকবলের অভাবে দীর্ঘ দিন ধরে স্টেশনে ক্রসিং বন্ধ রয়েছে। চুরি হয়ে যাচ্ছে মালামাল। একসময় টিলাগাঁও স্টেশনটি এলাকার প্রায় ৫০ হাজার মানুষের যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ছিল। বর্তমানে স্টেশনটি বন্ধ থাকায় যাত্রীরা ট্রেনের খবর জানতে, মালামাল বুকিং ও টিকেট সংগ্রহ করতে পারছেন না। ফলে অসংখ্য যাত্রী সিলেট, আখাউড়া, ঢাকা ও চট্টগ্রামে যাতাযাতে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন।

এলাকাবাসী বারবার মানব বন্ধন করে এবং রেলওয়ে কতৃপক্ষ বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করলেও শুধুমাত্র আশ্বাসবাণী মিলেছে কাজের কাজ কিছুই হয়নি!কাজেইএই স্টেশনটি পুনরায় চালু করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমরা স্থানীয় এলাকাবাসী জোর দাবী জানাচ্ছি!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category