আজ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ১:২০

বার : মঙ্গলবার

ঋতু : শরৎকাল

সুনামগঞ্জ সীমান্তে অসহায় মানুষের পাশে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন

সোহেল আহমদ সাজু- জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জঃ

সুনামগঞ্জ ২৮ বর্ডারগার্ড বিজিবি ব্যাটালিয়নের সুনামগঞ্জ সীমান্তের দায়িত্বপূর্ণ বিওপি এলাকার অসহায়, গরীব, দুঃস্থও হতদরিদ্র ৩ হাজার ৮৫০টি পরিবারের মধ্যে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে চাল, আটা, ডাল, তৈল, লবণ বিতরণ করা হয়েছে। ৫ সেপ্টেম্বর থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এসব ত্রাণসামগ্রী কয়েক দফায় বিতরণ করে বিজিবি।
অপরদিকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে যাচাই-বাছাই করে ১৩টি পরিবারকে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের ব্যবস্থাপনায় ‘আলোকিত সীমান্ত প্রকল্পের’ আওতায় সেলাই মেশিন, ভ্যানগাড়ী, গবাদিপশু, কৃষিকাজের জন্য বীজ, সার, ক্ষুদ্র চা দোকান এবং দোকান পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী (চা-পাতা, দুধ, চিনি, বিস্কুট ইত্যাদি) ও নগদ অর্থ প্রদান করে বিজিবি।
বিজিবি জানায়, ধর্মপাশা উপজেলার কার্তিকপুর ইউনিয়নের মাটিরাবন গ্রামের মিলন মিয়ার স্ত্রী মোছা. রাজিয়া খাতুন, পার্শবর্তী তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের মৃত জহুর আলী শিকদারের স্ত্রী মোছা. হামেলা শিকদার, বাদাঘাট ইউনিয়নের লাউরগড় গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী রাদিফা আক্তার ও দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলা বাজার ইউনিয়নের আব্দুল খালেকের স্ত্রী পারভিন আক্তার কে একটি করে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়।
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মঙ্গলকাটা ইউনিয়নের ছমেদ নগর গ্রামের মৃত আবু তাহের মিয়ার স্ত্রী সুখিয়া বেগম, উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের মাঝ হাটি গ্রামের সুজন মিয়ার স্ত্রী মরিয়ম বেগম, একই ইউনিয়নের মাঝহাটি গ্রামের তোরাব আলীর স্ত্রী পারভীন বেগম, ট্যাকেরঘাট গ্রামের স্মামী মৃত অঙ্গতা সরকারের স্ত্রী রানি বাল সরকারকে একটি গবাদীপশু প্রদান করা হয়।
উত্তর বড়দল ইউনিয়নের চাঁনপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিক মিয়ার ছেলে আলমগীর হোসেনকে কৃষিকাজের জন্য বীজ ও সার প্রদান করা হয়। লাউড়েরগর গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে দুলাল মিয়াকে ভ্যানগাড়ী প্রদান করা হয়। বাদাঘাট ইউনিয়নের শিমুলতলা গ্রামের আব্দুর রশিদের স্ত্রী মোছা. সোনা বানুকে ক্ষুদ্র চা দোকান ও দোকান পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী (চা-পাতা, দুধ, চিনি, বিস্কুট ইত্যাদি) প্রদান করা হয়। বাদাঘাট ইউনিয়নের গাঘটিয়া গ্রামের মৃত জৃয়েল আহমেদের স্ত্রী গোলাপী আক্তার ও ট্যাকেরঘাট গ্রামের মৃত শফিকুর রহমানের ছেলে নাজমুল হোসেনকে নগদ ১০ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়।
সুনামগঞ্জ ২৮ বর্ডারগার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্ণেল মাকসুদুল আলম উল্লেখিত ত্রাণ, অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদানে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন কর্তৃক আর্থিক সহযোগিতা করায় বিজিবি’র পক্ষ থেকে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সীমান্তবর্তী অসহায়, গরীব, দুঃস্থ’ ও হতদরিদ্র জনসাধারণকে সারা বছরব্যাপী এভাবে আর্থিক সহযোগিতার মাধ্যমে স্বাবলম্বী করার জন্য সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়ন (২৮ বিজিবি) এর প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category