আজ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৯:৩৪

বার : বুধবার

ঋতু : শরৎকাল

আশাশুনিতে সড়ক দুর্ঘটনায় এএসআই শাহজামাল এর মর্মান্তিক মৃত্যু এক কনস্টেবল আহত-১, আটক-৩

শেখ অা্বুমুছা সাতক্ষীরা জেলাপ্রতিনিধি

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা বাজার এলাকা থেকে ডিউটি শেষে থানায় ফেরার সময় রাস্তায় ট্রাকে রাখা বাঁশ বুকে ঢুকে আশাশুনি থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহজামাল নিহত হয়েছেন। এঘটনায় তার সঙ্গীয় কং/৬৮৩ নাজমুছ ছাদাত আহত হয়েছে এবং ট্রাক চালকসহ ৩ জনকে আটক ও ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। থানাসূত্রে জানাগেছে, আশাশুনি থানার এএসআই (নিঃ)/২১৬ শাহজামাল (বিপি-৮৬০৫০৮১২৮৬) সঙ্গীয় কং/৬৮৩ নাজমুছ ছাদাত বুধবার দিবাগত রাতে বুধহাটা বাজার ও আশপাশ এলাকায় রাত্রীকালীন টহলে দায়িত্ব পালন করছিলেন। দায়িত্ব পালন শেষে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে তারা মোটর সাইকেলে থানায় ফিরছিলেন। এসময় চাপড়া ব্রিজের উত্তর পাশে মেইন সড়কে ঢাকা মেট্রো-ট- ২৪-২২৪৪ নং ট্রাক অতিরিক্ত বাঁশ বোঝাই করে সড়কের বড় অংশ জুড়ে দাড়িয়ে ছিল। ট্রাকে লাল শালু টানানো বা সতর্কতামূলক সংকেত ছিলনা। এরপর অবৈধ ভাবে দাড়িয়ে থাকা ট্রাকের পিছনের ঝুলন্ত বাঁশের আগা বুকের ডান পাশে ঢুকে এএসআই শাহজামাল মারাত্মক জখম প্রাপ্ত হয়ে ফুসফুস ছিদ্র হয়ে শ্বাসকষ্ট হওয়ায় এবং তার বাম হাত জখম হওয়ায় তাৎক্ষণিক তাহাকে উদ্ধার করে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে অক্সিজেন দিয়ে দ্রুত এ্যাম্বুলেন্স যোগে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার ভোর ০৭.১৫ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষনা করেন। মৃতকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৪ বছর ৮মাস ৮দিন। এঘটনায় তার সাথে থাকা কং/৬৮৩ নাজমুছ ছাদাত এর বাম হাত জখম প্রাপ্ত হওয়ায় তার প্রাথমিক চিকিৎসা চলছে। পরে ট্রাক চালক সিরাজগঞ্জের কামাল, হেলপার তমাল ও বাঁশ ব্যবসায়ী পঞ্চগড়ের দুলালকে পুলিশ আটক করেছে ও ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। এদিকে, যশোর জেলার র্শাশা উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের সুলতান আহম্মেদ আলীর ছেলে এএসআই শাহজামালের মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে তার নিজ গ্রামে পাঠানো হয়েছে। আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এঘটনায় ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। ট্রাকের চালক ও হেলপার এবং বাঁশ ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও জানান, ট্রাকে কোনো আলোর ব্যবস্থা থাকলে এ দুর্ঘটনাটি হয়তো ঘটতো না। এদিকে, তার মৃত্যুতে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ মোস্তাফিজুর রহমান শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি এক শোকবার্তায় বলেন, এএসআই শাহজামালের এই অকাল মৃত্যুতে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী একজন দক্ষ অফিসারকে হারালো। এসময় পুলিশ সুপার জেলা পুলিশের সকল সদস্যের পক্ষ থেকে তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। উল্লেখ্য, এএসআই শাহজামাল ২০০৫ সালের ৭ আগস্ট বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। এরপর ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর আাশাশুনি থানায় যোগদান করেন। মৃত্যুকালে তিনি সন্তান সম্ভবা স্ত্রী, ১ ছেলে সন্তানসহ অসংখ্য গুনাগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মর্মান্তিক এ মৃত্যুতে আশাশুনি থানা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category