আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : দুপুর ১:১০

বার : রবিবার

ঋতু : বর্ষাকাল

মৌলভীবাজার পৌরসভা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী মো. অলিউর রহমান

মৌলভীবাজার বিশেষ প্রতিনিধিঃ

২৯শে জানুয়ারি শুক্রবার, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তার নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনা দেন। এসময় তিনি লিখিত বক্তব্যে জানান, পৌরসভা নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নেই, নির্বাচনে থাকা মানে হামলা-মামলা ও সহিংস পরিবেশ সৃষ্টি হওয়া।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অলিউর রহমানে ধানের শীষের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি, সাবেক মেয়র ফয়জুল করিম ময়ূন, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান, যুগ্নসম্পাদক মোঃ ফখরুল ইসলাম, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক, জেলা যুবদলের সভাপতি জাকির হোসেন উজ্বল সহ অন্যান্যরা।
বিএনপির মেয়র প্রার্থী মো. অলিউর রহমান এর লিখিত বক্তৃব্য হুবহু তুলে ধরা হলো-
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম
প্রিয় সাংবাদিক বৃন্দ,

আসসালামু আলাইকুম,
গতকাল আপনাদের গত ২৭/০১/২০২১ ইং তারিখে সরকার দলীয় প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘঠিত তান্ডবের বিষয় অবহিতকরেছিলাম যার খবর গতকাল সকল জাতীয় দৈনিক সমূহে আপনারাই প্রকাশ করেছেন। আমি সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থেচারজন নির্দিষ্ট ছাত্র লীগের ক্যাডার সন্ত্রাসীকে গ্রেফতারের জন্য আপনাদের মাধ্যমে ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম প্রদান করেছিলাম।পরিতাপের বিষয়, এই বিষয়ে রিটানিং অফিসার বা প্রশাসন কোন পদক্ষেপই নেন নেই।

গত ২৭/০১/২০২১ ইং তারিখে ছাত্র লীগের এই তান্ডবের কারনে এবং এই ঘটনায় পুলিশের সম্পূর্ন নিষ্কয়তার কারনে আমারদলের সমর্থকবৃন্দ ও কর্মীবৃন্দ আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে গেছে।

|। এই চারজন ছাত্র লীগের সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করলে নির্বাচনী পরিবেশ কিছুটা হলেও ফিরে আসতে পারত। সেই পদক্ষেপযখন রিটানিং অফিসার বা প্রশাসন নেন নাই এবং যেহেতু সরকার দলীয় প্রার্থির সন্ত্রাসী ক্যাডারদের সারা শহরে ভীতি প্রচারঅব্যাহত রয়েছে এবং যেহেতু সরকার দলীয় প্রার্থী শত শত বহিরাগত সন্ত্রাসী শহরে সমাগম করেছেন এবং যেহেতু আমার দলেরসম্ভাব্য পোলিং এজেন্ট সমূহকে ফোনে এবং অনেক ক্ষেত্রে তাদের বাড়িতে গিয়ে এই সন্ত্রাসীরা হুমকি প্রদান অব্যাহত রেখেছে, তাই এইরুপ পরিস্থিতিতে আমি আগামীকাল অনুষ্ঠেয় মেয়র নির্বাচন থেকে সরে দাড়ানাের আমার সিদ্ধান্ত আপনাদের অবহিতকরলাম এবং বিষয়টি রিটানিং অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে লিখিত ভাবে ইতিমধ্যে অবহিত করেছি।

এই প্রহসনের নির্বাচনে অংশ নিয়ে সরকারী দলীয় প্রার্থীকে বৈধতা প্রদান করার আমার ও আমার দলের বিন্দুমাত্র ইচ্ছে নেই।নির্বাচন থেকে আমার সরে যাওয়ার ফলে আমার সমর্থক ভওটারবৃন্দতো বটেই এমনকি সরকার দলীয় সমর্থক ভোটাররাওঅংশ নিবে না বলে আমার বিশ্বাস। আর সরকার দলীয় প্রার্থী এই ধরণের একটি প্রহসনের নির্বাচনে যদি আত্নতৃপ্তি পায়, তোতিনি সেটা নিয়ে খুশি থাকুক। আমাদের উনার অবৈধ “জয়“-কে বৈধতা প্রদান করার কোন অভিলাস নেই।
পরিশেষে আপনাদের এখানে উপস্থিত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category