শিরোনাম
সিবিসাস’-এর পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে কুলাউড়ার দুই কৃতি সন্তান ‘সেলিম ও খলিল’। বাহুবলে এড: মো: আলমগীর চৌধুরী’র শীতবস্ত্র বিতরণ। ত্রিশটি মামলায় ২৮৩ ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তি করেছে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ। দোয়ারাবাজারে আশ্রয়ন প্রকল্পের প্রতি ঘরে গিয়ে কম্বল বিতরণ জগন্নাথপুরে পৃথক অভিযানে ১৮২৯ পিচ ইয়াবা সহ বিপুল পরিমাণ গাঁজা উদ্ধার গ্রেফতার ৩ শ্রীমঙ্গলে আনসার ভিডিপি প্রশিক্ষককে বদলীজনিত বিদায়ী সংবর্ধনা। তাড়াইলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ইমাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সভাপতি ‘বিশ্বজ্যোতি’ ও সম্পাদক ‘সোহেল’ নির্বাচিত। দোয়ারাবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সংঘর্ষে আহত ৬। মৌলভীবাজারে “সিএমএফ”-এর উদ্যোগে শীত বস্ত্র বিতরণ।
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:২৫ অপরাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

টাংগাইল জেলায় করোনাক্রান্ত ১০,০৫১ ও শনাক্তের হার ৪২.৪৬%

Coder Boss / ১৫২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১১ জুলাই, ২০২১

মোঃ মশিউর রহমান, টাংগাইল জেলা প্রতিনিধিঃ

বাংলাদেশে মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব ক্রমাগত বেড়ে যাওয়ায় মাত্র ০৭ দিনের কঠোর লক-ডাউন জারি করেছেন বাংলাদেশ সরকার।

টাংগাইল জেলায় করোনা রোগীদের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালের রোগীদের নিয়ে ডাক্তার ও স্বাস্থ্য কর্মীদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। করোনাক্রান্ত রোগীদের চাপে যেন ভেঙে পড়েছে টাংগাইল জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা। বাংলাদেশে এই মহামারি করোনা ভাইরাস ভয়াবহ আকার ধারণ করার বিষয়টি সকলের কাছে এখন পরিচিত ঘটনা। এদিকে টাংগাইলের মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মাজেদ আলী সহ টাংগাইল জেনারেল হাসপাতালে ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মাত্র ০৬ জন এবং উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাত্র ০১ জন মোট ৭ জনের মৃত্যু হয়। এই নিয়ে সর্বমোট ১৫৬ জন, ৫৩ জন সুস্থ হয়, মোট ৫২৫১ জন সুস্থ হয়েছে। টাংগাইলের সিভিল সার্জন ডাঃ আবুল ফজল মোঃ সাহাবুদ্দিন খান বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিককে এ কথা জানান।

০১ থেকে ১০ জুলাই ২০২১ ইং তারিখ পর্যন্ত করোনাক্রান্ত হয়ে ৪১ জনের মৃত্যু হয়। ১০ জুলাই ২০২১ ইং তারিখ টাংগাইল জেলায় করোনাক্রান্ত হয়ে মাত্র ১০,০৫১ ছাড়িয়েছে। এতে করোনা শনাক্তের হার ৪২.৪৬%। ২৪ ঘন্টায় ৪৪৩ টি নমুনা পরীক্ষার মাঝে ১৮৬ টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসছে। এদের মধ্যে টাংগাইল জেনালের হাসপাতালে ৮১ জন, কালিহাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ০৪ জন, মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৫ জন, ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০ জন, গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ০৪ জন, নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ০১ জন এবং মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ০৯ জন। টাংগাইল জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক মাত্র ১০ জন ডাক্তার ও ৩৮ জন নার্স করোনাক্রান্ত হওয়ায় রোগীদের সেবা দেওয়া ব্যহত হচ্ছে। আইইডিসিআর এর ল্যাবে পরীক্ষায় দেখা গেছে টাংগাইলের রোগীদের প্রায় শতভাগই ডেল্টা ভেরিয়েন্টে আক্রান্ত যা ক্রমান্বয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করতে চলেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন