শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৪৬ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

জগন্নাথপুরে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাজী শাহজাহান মিয়ার উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ঈদ বস্ত্র বিতরণ

রনি মিয়া / ৬৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১০ জুলাই, ২০২২

রনি মিয়া জগন্নাথপুর প্রতিনিধি :

জগন্নাথপুর বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম আলহাজ্ব ফিরোজ মিয়ার সুযোগ্য পুত্র সুনামগঞ্জ জেলা মার্চেন্ট গ্রুপের সহ সাধারণ সম্পাদক ও মেসার্স আলহাজ্ব ফিরোজ এন্টার প্রাইজের সত্বাধিকারী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক, মানবাধিকার ব্যাক্তিত্ব হাজী শাহজাহান ফিরোজ তালুকদার ও ছোট ভাই মেসার্স ফাতেমা এন্টার প্রাইজের সত্বাধিকারী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী খাঁজা শাকিল আহমদের উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ১৫ শত নারী-পুরুষের মাঝে ঈদ উপলক্ষে লুঙ্গি ও শাড়ী বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০ টায় পৌর শহরের ইকড়ছই গ্রামের (পূরান থানার সামনে) নিজ বাড়ি প্রাঙ্গনে শাড়ী ও লুঙ্গি বিতরণ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জগন্নাথপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার শুভাশিস ধর।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথপুর থানার এস আই আব্দুস শহীদ, ছিলিমপুর জামে মসজিদের মোতাওয়াল্লী মোঃ উকিল আলী, আওয়ামীলীগ নেতা সালাহ উদ্দীন, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মতিউর রহমান, পীর আজিম শাহ, জগন্নাথপুর প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল মিয়া, সাংবাদিক হিফজুর রহমান তালুকদার জিয়া, সমাজ সেবক আফরাজ মিয়া, ব্যবসায়ী নাঈম রাজা, সাকিব আহমেদ, সাংবাদিক রনি মিয়া প্রমূখ।

শাড়ী ও লুঙ্গি বিতরণকালে হাজী শাহজাহান মিয়ার শিশুপুত্র সাদী ও সামী নিজ হাতে গরীব ও অসহায় মানুষের হাতে ঈদ উপহার তুলে দিলে সেদিকে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে।
ঈদবস্ত্র বিতরণকালে সহকারী পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর সার্কেল) শুভাশিস ধর বলেন হাজী শাহজাহান মিয়ার উদ্যোগে শাড়ী ও লুঙ্গি বিতরণের মাধ্যমে গরীব ও অসহায় মানুষের মূখে হাসি ফুটিয়েছে। এটি একটি মানবিক কাজ। চলমান বন্যায় মানুষ অনেক ক্ষতিগ্রস্ত। তাই ঈদবস্ত্র পেয়ে বন্যার্ত মানুষ উপকৃত হচ্ছে।

তিনি গরীব মানুষকে ঈদ উপহার দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারে ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করে নেয়ার জন্য তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন