আজ ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ৩:০০

বার : বুধবার

ঋতু : হেমন্তকাল

দশঘর ইউপি নির্বাচনে ভোটের লড়াই

 

রাজা মিয়া, বিশেষ প্রতিনিধি:

সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার ৮ নং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদে মোট পাঁচ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব জাবেদুর রহমান, জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী ধানের শীষ এমাদ উদ্দিন খান,জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকে আব্দুল মান্নান আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সমছু মিয়া লয়লুছ, বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল হোসেন মেম্বার।এছাড়া প্রতিটি ওয়ার্ডে সদস্য পদে ৭থেকে ৮ জন করে ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে তিন থেকে চারজন করে নির্বাচন করছেন।

নির্বাচনী এলাকায় খুব ধুর জুড়ে চলছে প্রচার-প্রচারণা। পোস্টার বিলবোর্ড ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে নির্বাচনী এলাকার সর্বত্র। প্রার্থীরা যাচ্ছেন ভোটারদের বাড়ি বাড়ি। এলাকা জুড়ে চলছে আনন্দের বন্যা। প্রসঙ্গত, সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে আটকে পড়া মামলায় দীর্ঘ ১৭ বছর ওই ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত ছিল। দীর্ঘদিন মামলার পর এবার ভোট প্রয়োগের সুযোগ পেয়েছেন দশঘর ইউনিয়ন বাসী। আগামী ২৯ শে অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহণের দিন ধার্য করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনী এলাকা ঘুরে জানা যায় প্রার্থী তোড়জোড়ে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছেন। তবে ভোটাররা বলছেন দীর্ঘদিন পর নির্বাচিত করার সুযোগ পাওয়ায় তারা আর সৎ যোগ্য ও অগ্রহণযোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচন করবেন।

অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের কত আশা করে ভোটাররা জানান নিরপেক্ষ ভোট হলে লড়াই হবে ত্রিমুখী। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব জাবেদুর রহমান নৌকা প্রতীকে ও ধানের শীষের প্রার্থী এমাদ উদ্দিন খান আওয়ামী বিদ্রোহী প্রার্থী সমছু মিয়া লয়লুছ ঘোড়া প্রতীকেই নির্বাচন জমবে। এছাড়া দশঘর ইউনিয়ন এ জাতীয় পার্টির একক প্রার্থী থাকায় সেখানে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোট পেতে পারেন লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী ও।

তবে ভোটাররা নিরব। এই নীরবতায় বুঝা যায় নির্বাচন হবে ভোটারমুখী। নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ করতে নির্বাচন কমিশন যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক জোরদার ও ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা নজরদারিতে থাকবে ভোট কেন্দ্রগুলো। এদিকে ২৭ শে অক্টোবর থেকে ২৯ শে অক্টোবর সকাল পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হবে.

নির্বাচন নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ভোটারদের অভিমত জানতে চাইলে ভোটাররা বলেন তারা ভোট নামক আমানতের মাধ্যমে যোগ্য প্রার্থীকে মূল্যায়ন করবেন। প্রার্থীদের অভিমত জানতে চাইলে বিএনপির মনোনিত প্রার্থী এমাদ উদ্দিন খান বলেন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে এই নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে জয়ী হবেন। এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী সমসু মিয়া লয়লুছ বলেন ভোটাররা তাকে ব্যাপক সাড়া দিচ্ছেন। তিনি নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে বিপুল ভোটে জয়ী হবেন বলে ও জানিয়েছেন।অন্য দিকে আওয়ামী লীগের জবেদুর বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও এলাকার উন্নয়নের কথা বিবেচনা করে মানুষ নৌকা মার্কায় ভোট দেবে এতে তিনি বিপুল ভোটে জয়ী হবেন।

অন্য দিকে জাতীয় পার্টির আবদুল মান্নান বলেন জাতীয় পার্টিকে মানুষ মন থেকে ভালোবাসে।২৯ তারিখ লাঙ্গল প্রতীকে ভোট দিয়ে লাঙ্গল প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত হবে বলে ও জানান তিনি। জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব জয়নাল আবেদীন জানান দশঘর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত হবে। জাতীয় পার্টির ঘাটি হিসেবে দশঘরের পরিচিতি রয়েছে।

এজন্য দলের পক্ষ থেকে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মতে একক প্রার্থী দিয়েছেন তারা।আগামী ২৯ অক্টোবর নির্বাচনে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান পদে সংখ্যা গরিষ্ঠতা অর্জন করবে জাতীয় পার্টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category