শিরোনাম
শোক সংবাদ বানারীপাড়ায় জমিসংক্রাস্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় হিমোফিলিয়া রোগে আক্রান্ত সজিবের অবস্থা গুরুত্বর মৌলভীবাজার জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর বিক্ষোভ মিছিল খুলনায় সড়ক দুর্ঘটনায় সাতক্ষীরার মেধাবী ছাত্রের মৃত্যু চট্টগ্রামে দূর্মর বাংলাদেশ এর বৃক্ষরোপন কর্মসূচি সম্পন্ন একাই করেন তিনটি সরকারি চাকুরী দ্রব্যমূল্য উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে জগন্নাথপুরে জাতীয় পার্টির প্রতিবাদসভা বড়লেখার হাকালুকি হাওর পারে গৃহনির্মাণ সামগ্রী বিতরণ জামিনে বের হয়ে ফের দুই প্রতারক সহ গ্রেফতার মজিবুর রহমান। গুমান মর্দন প্রবাসী পরিষদ সংযুক্ত আরব আমিরাত গভীরভাবে শোকাহত
শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৮:২৮ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

তাহিরপুরে টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে নিম্নঅঞ্চল প্লাবিত ও বিদ্যুৎ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

Coder Boss / ৩০৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৮ জুন, ২০২০

তাহিরপুর  প্রতিনিধিঃ

তিনদিন ধরে টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে তাহিরপুর সদর থেকে জেলা শহর সুনামগঞ্জ সড়কের আনোয়ারপুর, শক্তিয়াখলা, দূর্গাপুর ও লালপুর এলাকার প্রায় ৮কি.মি সড়ক পথ রয়েছে কোমর পানি পানির নিচে। সুনামগঞ্জের সুরমা নদীর পানি বিপদ সীমার ৬৬ সে. মি. ও তাহিরপুর উপজেলার সীমান্ত নদী যাদুকাটার পানি বিপদ সীমার ১৭৪ সে. মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জানা গেছে, তাহিরপুর উপজেলা সদরের সাথে ৭ ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙ্গে পড়েছে।  উপজেলায় গত তিনদিন ধরে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। বাণ্যিজিক কেন্দ্র বাদাঘাট-সোহালা ও দিঘীরপাড় সড়কের অধিকাংশ রয়েছে পানির নিচে। এছাড়াও উপজেলার ৭ইউনিয়নের আন্তঃ সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে বন্ধ। উপজেলার শতাধিক গ্রামের মানুষ এখন পানিবন্ধি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

পানিতে ভেসে গেছে শতাধিক পুকুরের মাছ। টাঙ্গুয়া হাওরের পার্শ্ববর্তী মন্দিয়া নামক একটি গ্রামের ২৫ থেকে ৩০টি ঘর পানির ঢেউয়ে ব্যাপক ক্ষতি এবং তাহিরপুর সীমান্তবর্তী এলাকার গ্রামের শতাধিক ঘর বাড়ী পাহাড়ী ঢলে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জররী বিভাগে উঠেছে বানের পানি।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহ জানান, উপজেলার বালিজুরী, বাদাঘাট, বড়দল উত্তর, বড়দল দক্ষিণ, শ্রীপুর উত্তর, শ্রীপুর দক্ষিণ ও তাহিরপুর সদর ইউনিয়নের দুই শতাধিক গ্রামের মানুষ পানিবন্দি  হয়ে পড়েছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শনিবার কিছু শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে তালিকা তৈরি করে প্রতিটি ইউনিয়নে দূর্গতদের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দেয়া হবে।

সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার অখিল কুমার সাহা জানান, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার, বিশ্বম্ভপুর ও তাহিরপুর উপজেলার সীমান্ত ঘেষা এলাকাগুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। পানি কমলে এসব এলাকায় কাজ করে বিদ্যুৎ সরবরাহ  করা হবে।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শফিকুর রহমান জানান, গত ২৪ঘন্টায় সুনামগঞ্জে ১৯০ মি.মি. এবং গত চারদিনে ৪শ’৮৩মি.মি বৃষ্টিপাত হয়েছে।  শনিবার বিকেল পর্যন্ত সুরমা নদীর পানি বিপদ সীমার ৬৬ সে. মি. উপর দিয়ে এবং যাদুকাটা নদীর পানি ১৭৪ সে. মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তিনি আরো জানান, আগামী দুই তিন দিন সুনামগঞ্জে ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন