আজ ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৩ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ৯:০৮

বার : বৃহস্পতিবার

ঋতু : বর্ষাকাল

ঈদের আনন্দ নেই তাদের জীবনে

দিলোয়ার হোসাইন, বানিয়াচং(হবিগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

মহামারী করোনা ভাইরাসের কারনে চলতি বছরের মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে সারাদেশে জীবনযাত্রা সীমিত করার ফলে কমে গেছে মানুষের আয়-উপার্জন।
বর্তমান সময়ে চলছে বন্যার উপদ্রুব।

সবকিছু মিলিয়ে ভাল নেই দেশের মানুষ ।
সারাদেশের ন্যায় হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার মানুষজনও মুখোমুখি কঠিন এক সময়ে।
সরেজমিনে বানিয়াচংয়ের বিভিন্ন গ্রামের মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে তারা অজানা কঠিন ও অবাস্তব সময়ের মুখোমুখি।

বানিয়াচং উপজেলার ৪নম্বর দক্ষিন-পশ্চিম ইউনিয়নের প্রথমরেখ গ্রামের হেকিম উল্লা জানান, নিজের বসত বাড়ী বন্যার পানিতে ডুবে গেছে।দুই সপ্তাহ যাবৎ আত্মীয়র বাড়িতে পরিবারের লোকজন নিয়ে থাকি।
আমাদের কিসের ঈদ। খুবই দুরবস্থায় আছি।
বানিয়াচং ১নম্বর উত্তর-পূর্ব ইউনিয়নের চতুরঙ্গ রায়ের পাড়া‘র বন্দের বাড়ী এলাকার
শাহেনা বেগম জানান, বসত ঘরে পানি উঠে গেছে। ঘরের মধ্যে মাচা বেধে আছি। কোথাও যাবার জায়গা নাই। এরমধ্যে ঈদ যে আসছে সেইটা আমরার মনেই অয় নাচ্। এইবার আমরার কোন ঈদও নাই,ঈদের খুশিও নাই।

বানিয়াচং ৩নম্বর দক্ষিন-পূর্ব ইউনিয়নের ঈনাতখানী গ্রামের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুবাই প্রবাসী জানান, করোনা ভাইরাসের কারনে খুবই সংকটে আছি। দীর্ঘদিন যাবৎ দুবাই ছিলাম। প্রবাস থেকে ইনকাম করে টাকা পাঠিয়েছি পরিবারের লোকজনের জন্য। সবাই মিলে আনন্দের সাথে ঈদ পালন করেছেন।

ছুটিতে দেশে এসে আর যেতে পারি নাই। এইবার আমার পরিবারের লোকজন ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত।প্রতি বছরই ঈদে কোরবানি দেওয়া হতো এবার আর কোরবানি দেওয়া সম্ভব না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category