আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৭:২৪

বার : মঙ্গলবার

ঋতু : হেমন্তকাল

শ্রীমঙ্গলে স্বামীর অধিকার ফিরিয়ে দিতে কান্তাদাসের পাশে মানবাধিকার সংগঠন আসক ফাউন্ডেশন

এইচ অার রুবেল :

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাপলাবাগ আ/এ গৌতম দাসের মেয়ে কান্তা দাস তার স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে স্বামীর বাড়ীতে গত তিনদিন যাবৎ অনশন শুরু করে।

এবং পর্যবেক্ষণে গিয়ে কান্তাদাসের কাছ থেকে জানা যায়
কান্তাদাস সংগীতশিল্পী হিসেবে একটি গানের অনুষ্ঠানে পরিচয় যুবকের সাথে, তারপর থেকে চলে নিয়মিত কথপোকথন ক্ষুদে বার্তা আদান প্রদান। এক সময় ভালোবাসার প্রস্তাব নিয়ে আসেন সেই যুবক কিশোর গোস্বামী।
প্রথমে রাজি না হলেও পরবর্তীতে ভালোলাগা থেকে ভালোবাসা। অতঃপর দীর্ঘদিন প্রেম করার পর কিশোর গোস্বামীর কাছ থেকে আসে মন্দিরে বিয়ের প্রস্তাব। প্রথমে কান্তাদাস অপারগতা প্রকাশ করলেও কিশোরের চাপে সিঁদুর পরিয়ে স্থানীয় একটি কালি মন্দির বিয়ে করেন দু’জন। বিয়ের করার পর স্বামী কিশোর গোস্বামীর বাড়িতে না গিয়ে কিশোরের পরামর্শে নিজের বাড়িতেই থাকেন স্ত্রী। কিছুদিন পর বিষয়টি জানাজানি হলে কান্তাদাস তার স্বামী কিশোর গোস্বামীকে চাপ দেয় বাড়িতে নেওয়ার জন্য, কিন্তু স্বামী কিশোর বাড়িতে না নিয়ে বিভিন্ন কথা বলে সময় ক্ষেপন করতে থাকেন, এক সময় স্ত্রীকে অস্বীকার বসে। এতে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে কান্তাদাসের। শেষমেশ কোন উপায় না পেয়ে দুঃখ, কষ্ট নিয়ে স্ত্রীর অধিকারের দাবিতে শুক্রবার সকাল থেকে স্বামীর বাড়িতে অনশন করছেন কান্তাদাস ।
স্বামী কিশোর উপজেলার উত্তর উত্তরসুর মধ্যপাড়ার প্রানকৃষ্ণ গোম্বামীর ছেলে।
কান্তাদাস জানায়, বিয়ের পর একপর্যায়ে তিনি অন্তসত্বা হয়ে পড়লে কিশোর গোস্বামী তাকে শ্রীমঙ্গল কলেজ রোডস্থ একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ইউরিন পরীক্ষা করায়, সেখানে তার নাম লিখায় মিস প্রিয়া। ইউরিন পরীক্ষায় পজিটিভ আসলে স্বামী কিশোর গোস্বামী সেটাকে কৌশলে নষ্ট করায়। নারীর জীবনের মূল্যবান সম্পদ নষ্ট করাসহ স্বামী কিশোর তাকে ঘরে তুলবে বলে কালক্ষেপন করে চলেছে। ইতিমধ্যে কয়েকবার সালিশ বৈঠক ও হয়েছে। সালিশে প্রানকৃষ্ণ গোস্বামী তাকে বধু হিসেবে গ্রহন করার জন্য অনুরোধ করা হয়। কিন্তু এখনো গ্রহন করেনি। স্ত্রী হিসেবে তাকে যতক্ষণ মেনে না নেয়া হবে তিনি অনশন চালিয়ে যাবেন।
এদিকে খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল জাতিসংঘ (U.N) তালিকাভূক্ত আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্হা, আইন সহায়তা কেন্দ্র আসক ফাউন্ডেশন শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার একটি পর্যবেক্ষণ টিম পর্যবেক্ষণ করতে ঘটনাস্থলে যান।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্হা, আইন সহায়তা কেন্দ্র আসক ফাউন্ডেশন শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মোঃ আমজাদ হোসেন বাচ্চু বলেন
শ্রীমঙ্গল উপজেলার শাপলাবাগ আ/এ গৌতম দাসের মেয়ে কান্তা দাস তার স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে স্বামীর বাড়ীতে গত তিনদিন যাবৎ অনশন শুরু করে এমন একটি খবর আমার কাছে মুটোফোনে কল আসতে থাকে এবং বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে দেখতে পেয়ে
একটি পর্যবেক্ষণ টিম নিয়ে ঘঠনাস্হলে গিয়ে ঘঠনাটি পর্যবেক্ষণ করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category