শিরোনাম
ছাতক শহরে আনারস প্রতীকের বিশাল মিছিল বড়লেখায় সরকার বিরোধী ক্যাডার কাজী এনামুল হকের দৌরাত্ম ছাতকে আইডিয়াল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে খাবার পানি ও সাল্যাইন বিতরণ মৌলভীবাজারে প্রিজাইডিং অফিসার সহ দুইজন গ্রেফতার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েই কামাল খসরুর বাসভবনে লিয়াকত আলী বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন, তাহিরপুর উপজেলা নির্বাচনে  আলোচিত প্রার্থী মো:আফতাব উদ্দিন জৈন্তাপুরে উৎসব মূখর পরিবেশে শান্তিপূর্ণ  ভাবে ভোট গ্রহন সম্পন্ন- বিজয়ী হলেন যারা ছাতকে সহিংসতা মুক্ত উপজেলা নির্বাচনের দাবিতে যুব ফোরামের মানববন্ধন দোয়ারাবাজারে গাঁজা ও ইয়াবাসহ তিনজন আটক শাহপরান সমাজ কল্যাণ সংস্থার কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১২:২৯ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পলাতক, দাপ্তরিক কাজ ব্যাহত

সিলেট নিউজ ডেস্ক / ৯৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৫ মে, ২০২৩

জগন্নাথপুর প্রতিনিধিঃ

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার ৭ নং সৈয়দ পুর শাহার পাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান হত্যা মামলার কারণে আমাসী হয়ে লন্ডনে পলাতক রয়েছেন।। তিনি না থাকায় দাপ্তরিক কাজ ব্যাহত হচ্ছে।।
ইউনিয়ন পরিষদের তথ্যমতে, চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনকালে ২০২৩ সালের ২৮ এপ্রিল আবুল হাসান একটি হত্যা মামলা আসামি হন। এ ঘটনার পর থেকে গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ২০২১ সালে ২৬ ডিসেম্বর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান হন। গত ২৮/৪ ২০২৩ইং সৈয়দ পুর শাহার পাড়া ইউনিয়নের মুল্লিক পাড়ার ঐয়ার কোনা গ্রামের মারামারির ঘটনায় এক যুবক হত্যা হয়।এ
মামলায় তাঁকে আসামি করা হয়।
মামলার কারণে চেয়ারম্যান পলাতক থাকায় পরিষদের উন্নয়নমূলক কাজসহ দাপ্তরিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। অনেক দিন ধরে গ্রাম্য সালিস হচ্ছে না। এ ছাড়া জন্মনিবন্ধন, নাগরিকত্ব সনদ, ওয়ারিশ সনদপত্র পেতে সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ইউনিয়নের সৈয়দপুর এলাকার লোক
বলেন, পলাতক থাকায় অনেক দিন ধরে চেয়ারম্যান কার্যালয়ে যান না। ফলে অনেকেই জন্মনিবন্ধন ও নাগরিকত্ব সনদপত্র নিতে পারছেন না।
মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসান পাওয়া যায়নি। তাঁর পরিবারের লোকজনও এ বিষয়ে কিছু বলেননি।

এদিকে জনগণের দুর্ভোগ লাঘবে প্রশাসক নিয়োগ অথবা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নিয়োগের দাবি করছেন,পরিষদের।
ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ফারুক আহমেদ বলেন, চেয়ারম্যানের সাথে আমার কোন যোগাযোগ নেই।আমি কোন লিখিত পাইনি। প্যানেল
চেয়ারম্যান মোঃ সামসুউদ্দিন কামালী বলেন ঘটনার পর থেকে চেয়ারম্যান সাথে আমার কোন যোগাযোগ নেই।উনি আমাকে কোন লিখিত দেন নাই।ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান না থাকায় সমস্যা হচ্চে।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজেদুল ইসলাম বলেন,চেয়ারম্যান না থাকলে
ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান কার্যক্রম চালাতে পারেন।। তার পরও আমি নিশ্চিত হয়ে বলি।।
যাচাই-বাছাই করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।।।
উল্লেখ্য, উপজেলার সৈয়দপুর (ঈশানকোণা) গ্রামের সৈয়দ আলমগীর মিয়ার সঙ্গে সৈয়দ হোসাইন আহমেদের মধ্যে পূর্ব বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে গত ২৮ এপ্রিল রাতে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের ছুঁড়া গুলিতে সৈয়দ জামাল গুলিবিদ্ধ হলে তাঁকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন আরো চার জন।
১ মে নিহতের ভাই সৈয়দ হোসাইন আহমদ বাদী হয়ে সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবুল হাসানসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ করে জগন্নাথপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ৬ মে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে জুম্মান আহমদ (২৭) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। হত্যা মামলার কারণে আমাসী হয়ে লন্ডনে পলাতক রয়েছেন।। তিনি না থাকায় দাপ্তরিক কাজ ব্যাহত হচ্ছে।।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

বিভাগের খবর দেখুন