আজ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ১১:০৪

বার : সোমবার

ঋতু : শরৎকাল

মোবাইল টাওয়ার থেকে ওয়াইফাই চালুর পরীক্ষা সফল

আলমগীর হোসেন : মোবাইল ফোনের টাওয়ার থেকে ওয়াইফাই ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়ার পরীক্ষা সফল হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

তিনি বলেন, ‌‌’একটা জায়গায় এটা পরীক্ষা করেছি, এটা কাজ করেছে। ৫০ এমবিপিএস পিক দিতে পারি আমরা, এটা যথেষ্ট। যে জায়গাতে আমি কেবল দিতে পারব না, সে জায়গাতে যদি আমি এটা দিতে পারি তাহলে কাজে লাগবে। যখন প্রয়োজন হবে আমরা এটা ব্যবহার করব।’

ভয়েস কল ও ডেটা সেবা দুটোই মিলছে এখন মোবাইল টাওয়ার থেকে। এবার এই টাওয়ার দিয়ে ওয়াইফাই ইন্টারনেট সংযোগ চালুর পরীক্ষায় সফল হওয়ার কথা জানালেন মন্ত্রী।
সপ্তাহখানেক আগে নেত্রকোনার খালিয়াজুরীর কৃষ্ণপুরে টাওয়ার থেকে ওয়াইফাই করার এ পরীক্ষা করে টেলিটক। এতে আবদুল জব্বার রাবেয়া খাতুন উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিনা মূল্যে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবহার করার সুযোগ পেয়েছেন।

এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে সরকার দেশের ১৪৬টি সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও ট্রেনিং ইন্সটিটিউটে বিনামূল্যে উচ্চগতির ওয়াইফাই চালুর কার্যক্রম উদ্বোধন করে।

টেলিকম অপারেটরগুলোও মেট্রোপলিটন এলাকায় এই সেবা চালু করতে আগ্রহী। তবে আইএসপিএবি বলছে, টাওয়ারের ওয়াইফাই প্রযুক্তিতে উচ্চগতির ইন্টারনেটের মান সার্বক্ষণিক ধরে রাখা কঠিন।

মোবাইল ফোনের টাওয়ার ব্যবহার করে ওয়াইফাই দিতে আগ্রহী টেলিকম কোম্পানিগুলো। তবে কোম্পানিগুলো মেট্রোপলিটন এলাকায় এই প্রযুক্তি চালুর সুযোগ চায়। দেশে এখন চারটি টেলিকম কোম্পানির মোবাইল টাওয়ার প্রায় ৩৫ হাজার।

রবি আজিয়াটার চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার শাহেদ আলম বলেছেন, ‘যদি ওয়াইফাই দিতে চাই, তাহলে আমাদের শুরুটা হবে ঢাকা ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন এরিয়ায়। কারণ, এখান থেকে বেশিরভাগ কাস্টমারের ওয়াইফাই ডিমান্ড বেশি। কিন্তু পলিসিতে বলা আছে, ঢাকা ও চট্টগ্রামে অপারেটররা ওয়াইফাই দিতে পারবে না। ওয়াইফাইয়ের ক্ষেত্রে আলাদা করে পলিসি করে আমাদের সে সুযোগটা দেয়া হোক, যাতে আমরা ওয়াইফাইটা মানুষের দরবারে নিয়ে যেতে পারি।’

এদিকে মোবাইল টাওয়ার ব্যবহার করে ব্রডব্যান্ড মানের ইন্টারনেট দেয়া কঠিন, বলছে ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবি। সংগঠনটির সভাপতি এম এ হাকিম বলেন, ‘ওয়্যারলেস টেকনোলজিতে ফাইভ জি না আসা পর্যন্ত এই টেকনোলজি দিয়ে ব্রডব্যান্ড সেবা দেয়া সম্ভব না। এখানে এত লিমিটেড চ্যানেল আছে, লিমিটেড চ্যানেল দিয়ে নাম্বার অব এক্সেস পয়েন্ট ডেপ্লয় করলে ফ্রিকোয়েন্সি ওভারল্যাপিং হবে। প্রিমিয়াম লেভেলে সার্ভিস কোনভাবেই ডেপ্লয় করা সম্ভব হয় না।’

তবে টাওয়ারে ওয়াইফাই চালু হলেও মোবাইল ডেটা ও ভয়েসে কোনো সমস্যা হবে না। রবি আজিয়াটার চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার শাহেদ আলম আরও বলেন, ‘আমরা যদি ওয়াইফাই এর মাধ্যমে নেটওয়ার্ক দেই সেক্ষেত্রে ভয়েস বা অন্যান্য জায়গায় সমস্যা হওয়ার কথা না। কারণ ক্যাপাসিটি রেখেই আমারা ওয়াইফাইয়ের জন্য ক্যাপাসিটি নির্ধারণ করে রাখব। সেক্ষেত্র টেকনোলজিকালি কোনো সমস্যা হওয়ার কারণ নেই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category