শিরোনাম
নগরীর মদিনা মার্কেটে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত মৌলভীবাজারে মুন্সিবাজারে সালাউদ্দিন স্টোরে ৯১৬৮ লিটার সোয়াবিন তেল জব্দ, ১ লাখ টাকা জরিমানা বানিয়াচংয়ে ৬০০ লিটার মজুদ তেল উদ্ধার সাঘাটায় টিকটকে পরিচয়ে অপহরণের ঘটনায় নারী আটক গোবিন্দগঞ্জে আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও আর্থিক সহায়তা প্রদান নলছিটি উপজেলায় টিনশেড রুমে ভয়াভহ অগ্নিকাণ্ডে দেড়লাখ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ কৃষক দল সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিতl গোয়াইনঘাট ফের বন্যা, কৃষকের ফসলি জমিতে পাকা ধান শোক সংবাদ
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ১০:২৫ অপরাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

পথশিশু

Coder Boss / ১২৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০

নিরব রিমন,সীতাকুন্ড চট্টগ্রামঃঃ

আমাদের সমাজে এক পথশিশুর জীবন যুদ্ধ খুবই কঠিন। পথশিশু বেড়ে ওঠে অযত্নে অবহেলায় ফুটপাতে-রেল স্টেশনে
রাস্তার পাশে।
কোন ভালবাসার সংস্পর্শ ছাড়াই। সুবিধাবঞ্চিত কিংবা পথশিশু এই তার পরিচয়।

সুবিধাবঞ্চিত এসব শিশুদের নিয়ে নেই কারো কোনো মাথা ব্যাথা। শীত বর্ষা গরম যায় হোক না কেন সব সময় পড়ে থাকে তারা ফুটপাতে বা রাস্তার পাশে।
নেই কোন তাদের পরিচয়।
নেই আমাদের মতো মা বাবার আদর। জানা নেই তাদের কে তার বাবা, কে তার মা।
পথশিশু বা যে নামেই ডাকি না কেন। শহরের
চলার পথে অলিতে গলিতে সন্ধান মিলবে এমন হাজারো শিশুদের। বাস্তবতা তারা দেখেছে। আমাদের চেয়েও বেশি
পথ শিশুর জীবনের চাকা
দিনে দিনে বেড়েই চলেছে।
পথই হলো তাদের ঠিকানা।
জীবনের স্বপ্নগুলো থাকে তাদের অজানা। ক্ষুধার্থ পেট আর খালি পকেট বাস্তবতা শিখিয়ে দেয় তাদের।

সত্যি কি একটা শিশু।
পথশিশু হয়ে জন্ম নেয়।
কখনোই না। প্রতিটি শিশুই তার নাগরিক অধিকার নিয়ে জন্ম নেয়। আজ যে শিশু ভালো ভাবে কথা বলতে শিখেনি, তাকে ও জীবিকার তাগিদে ভিক্ষা করতে হয়। তার কাছে এখন জীবন মানে শুধু খুদা নিবারনের জন্য পথে পথে ভিক্ষা করে অসহ্য যন্ত্রণার সাথে বেঁচে থাকার লড়াই। শুধু কি তাই কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পথ শিশুদের ও নিয়ে শুরু করেছে ব্যবসা। আমাদের দেশের পথ শিশুদের পাচার করে দেয়া হচ্ছে, অন্য দেশে। শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। কিন্তু আমাদের দেশে একটি বড় অংশ পরিচিত পথশিশু হিসেবে। যাদের দিন যাপিত হয় শুধুমাত্র এক বেলা খাবার সংগ্রহের চেষ্টায়।
কিছু কিছু শিশু এমনও হয়, যাদের কল্পনার জগৎটা শুধুই তিনবেলা পেটপুরে খাওয়ার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ৷
একথালা গরম ধোঁয়া ওঠা ভাত আর এক টুকরো মাছ কিংবা একটা গোটা ডিম মানেই পিকনিক। শিশুদের মানসিক বিকাশ হওয়ার জন্য যা যা দরকার এই পথশিশু গুলো সবকিছু থেকে বঞ্চিত হয়।
পায় না ভালো আচরণও।
শুধুই জোটে অবহেলা আর একরাশ অসম্মান। করোনা সংকটে অনেক অসহায় মানুষের সাথে দেশের অনেক পথশিশু সকরুণ দিন জীবন যাপন করছে। এমন দূর ব্যবস্থার জন্য সমাজ ও রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থা এর দায় কোনো ভাবেই এড়াতে পারে না।

দেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সুরক্ষায় বর্তমানে বাংলাদেশের অনেক প্রতিষ্ঠান স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এগিয়ে আসছে।
এ রকম ভাবে আমাদের সমাজের সামর্থ্যবান মানুষরা যদি একটু এগিয়ে আসে। তাহলে পথশিশু বলে কেউ থাকবে না। আমার যদি একটি শিশুকে সুরক্ষা দিয়ে নিশ্চিত করতে পারি। তাহলে দেশজুড়ে কোন পথশিশু অসহায় থাকবে না। আসুন যতটুকু সামর্থ্য তা দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে অসহায় পথ শিশুর পাশে দাঁড়ায়।

লেখক
সরওয়ার উদ্দিন নিরব রিমন
সদস্যঃ বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরাম
শিক্ষার্থী ছোট দারোগার হাট তাহের মঞ্জুর কলেজ
সীতাকুন্ড চট্টগ্রাম
01881402028
nirobremon152@gmail.com


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন