শিরোনাম
প্রতিবছর বন্যা ও জলাবদ্ধতা থেকে রেহাই পায় না সিলেট নগরী! সিলেটে নদীর বাঁধ সংস্কারকাজে ব্যয় হবে ২০ কোটি টাকা ছাতকে বানভাসির পাশে এসো শান্তির পথে ব্লাড ফাউন্ডেশন (জারিয়া) সুনামগঞ্জ শাখা ঈমান রক্ষার দোয়া। হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী শ্রীমঙ্গলে জ্ঞানমুদ্রা বেদ ও গীতা পরিবার এর প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত আলোকিত মানুষের গল্প শিক্ষাবিদ সমজিদ আলী ছাতকে বানভাসীদের পাশে ইঞ্জিনিয়ার রজিবুর রহমান মোহেল সিলেটে বন্যার্তদের মাঝে স্বেচ্ছাসেবক দলের ত্রাণ বিতরণ হবিগঞ্জে আশ্রয়কেন্দ্রে সরকারি খাদ্য সহায়তা না পাওয়ার অভিযোগ মাধবপুরে এক ইউপি সদস্যের  নামে ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলার নিউজ প্রকাশ করে হয়রানি করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

মাধবপুরে গরম চালের বাজার,স্বস্তি নেই সবজি ও পেঁয়াজে বাজারে।

Coder Boss / ২৮৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০

মাধবপুর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি ::

হবিগঞ্জ মাধবপুর উপজেলা সব বাজারে ক্রেতাদের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে, সপ্তাহের ব্যবধানে সবজির দামে তেমন হেরফের নেই। গেল দুই থেকে তিন সপ্তাহের মতো এ সপ্তাহের শুরুতে সবজির দাম উর্ধ্বমুখী।এদিকে চালের বাজারেও স্বস্তি মিলছে না ক্রেতাদের। ৪৫ টাকার নিচে কোনো চালই নেই। চাল ব্যবসায়ীরা বলেছেন. চালের সরবরাহ কম থাকায় বেড়েছে চালের দাম। যা আরো বাড়তে পারে।এদিকে পেঁয়াজের দাম খুচরা বাজারে ৭৬ থেকে ৮০ টাকার মধ্যে উঠানামা করছে। যা নিয়েও অস্বস্তিতে রয়েছেন ক্রেতারা। শনিবার (০৩ অক্টোবর)

মাধবপুর উপজেলাতে যে সব বাজার রয়েছে যেমন,মাধবপুর পৌরসভার বাজার, ধর্মঘর বাজার,কাশিমনগর বাজার,চৌহমুনী বাজার,মনতলা বাজার, চেগাবাজার, তেলিয়াপাড়া বাজার,জগিদীশপুর বাজার, নোয়াপাড়া বাজার,শাহপুর বাজার,ছাতিয়ান বাজার, বাঘাসুরা বাজার, আরো অনেক বাজার রয়েছে ঘোড়ার সম্ভব হয়নি এজন্য আমি দুঃখিত, ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়।বাজারে প্রতিকেজি পেঁপে ৩৫ টাকা, বেগুন ৫০ টাকা, কুমড়া ৪০ থেকে ৫০ টাকা, কাঁচামরিচ ১৪০ টাকা, তিতকরলা ৬০ টাকা, পটল ৫০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, টমেটো ১০০ থেকে ১২০ টাকা, গাজর ৯০ টাকা ও আলু ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

চালের বাজারে প্রতিকেজি মিনিকেট ৫১ টাকা, মোটা চাল ৪৪ থেকে ৪৫ টাকায়, চিকন চাল ৫০ থেকে ৫২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

তবে আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে মাছ-মাংস। বাজারে তেলাপিয়া ১৩০ টাকা, রুই ২০০ টাকা, কাতলা ২৭০ টাকা,কারফু ২৫০ টাকা, পাঙ্গাস ১০০ থেকে ১২০ টাকা,মিকরা ১৫০ টাকা, চিংড়ি ৫৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া রূপালি ইলিশ কেজিতে বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৭০০ টাকায়।

মাংসের বাজারে প্রতিকেজি গরুর মাংস ৫৫০ টাকা ও খাসির মাংস ৭০০ থেকে ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ব্রয়লার মুরগির ১১০ থেকে ১২০ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৩০ টাকা কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে সব মিলিয়ে অস্থির অবস্থান সাধারণ ক্রেতার নাগালের বাহিরে আছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন