আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : দুপুর ১২:২২

বার : মঙ্গলবার

ঋতু : হেমন্তকাল

শেরপুর কুশিয়ারা নদীতে (মৌলভীবাজার) নৌকা দৌড় সম্পন্ন।

আমিরুল ইসলাম সাহেদ:- মৌলভীবাজার।
গ্রাম বাংলার ঐতিয্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে গ্রাম বাংলার আদি সংস্কৃতির রূপ-লাবণ্যের দৃশ্যায়ন হয় কুশিয়ারা তীরে। বৃহস্পতিবার ৮ই অক্টোবর বিকেলে মৌলভীবাজার সদর উপজেলাধীন শেরপুর হামরকোণা-ব্রাহ্মণগ্রামের যুবসমাজ আয়োজিত নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার নান্দনিক রূপ, রস উপভোগে শামিল হন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতকিুর রহমান দম্পতি।
নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় সিলেট বিভাগের ৪ জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে থেকে আসা ১৪টি নৌকা অংশগ্রহণ করে। নৌকাগুলো হচ্ছে নবীগঞ্জের সাজু ছোট বাখইড় গ্রামের শাহ.র তরী, সুনামগঞ্জের আলহাগদী গ্রামের সোনার বাংলা, সুনামগঞ্জের তিলক সাহারপাড়ার উড়াল পবন, বাগাউড়ার পঙ্খীরাজ, হবিগঞ্জের করিমপুর গ্রামের জয় পবন, সিলেটের শরিষপুর গ্রামের বাংলার তুফান, নবীগঞ্জের বাঘরাজ, ওসমানিনগরের বাংলার রকেট, মৌলভীবাজারের অন্তেহরির অজ্ঞান ঠাকুরের নৌকা, নবীগঞ্জের হালিতলা গ্রামের শাহজালালের তরীসহ ১৪টি নৌকা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।

প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় সাজু শাহ.র তরী, রানার্স আপ হয় সোনার বাংলা তরী ও তৃতীয় স্থান অধিকার করে উড়াল পবন নামের নৌকা। নৌকাবাইচ পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে বিজয়ী কে একটি ফ্রিজ ও রানার্স আপ ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী নৌকার মালিক কে একটি করে ২৪ ইঞ্চি এলিডি টিভি পুরস্কার দেওয়া দেওয়া হয়।
নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুর ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসন,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফুল ইসলাম, ১নং খলিলপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অরবিন্দ পোদ্দার বাচ্চু, যুক্তরাজ্য প্রবাসী জাবেদ আহমদ রনি, স্থানীয় আ’লীগ নেতা আব্দুল হাকিম,অলিউর রহমান,আশরাফ আলী প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন- গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যের ধারা বহনকারী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা সহ বিভিন্ন লোকজ সংস্কৃতি চর্চা ছাড়া বাঙ্গালির অতীত ঐতিহ্যকে ধরে রাখা যাবে না। নৌকাবাইচের মতো প্রতিযোগিতা যারা আয়োজন করতে পারে তারা কখনও মাদকাসক্ত হতে পারে না। তিনি আরও বলেন নৌকার ইঞ্জিন একটি শুধু সামনে দিয়ে এগিয়ে। আর বাংলাদেশ আ’লীগের মার্কা নৌকা। শেখ হাসিনার নৌকাও উন্নয়নে এগিয়ে চলেছে।
মেয়র আতিকুল ইসলাম ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে চ্যাম্পিয়ান নৌকাকে ২৫ হাজার, রানার্স আপকে ১৫ হাজার ও তৃতীয় স্থান অধিকারীকে ১০ হাজার টাকা উপহার দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category