শিরোনাম
ছাতক শহরে চুরি বৃদ্ধি তাহিরপুরে অগ্নিকাণ্ডে ৩৫টি মিটার পুড়ে ছাই সাতক্ষীরায় প্রতিবন্ধী মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ হেযবুত তওহীদের কেন্দ্রীয় সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠিত দয়ামীরে সন্তাসী হামলায় স্বীকার এক বৃদ্ধ! আসন্ন চরজুবলী ইউপি নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী বেলাল হোসেনের উঠান বৈঠক আদর্শ ছাত্র ও যুব সমাজ এর পক্ষ থেকে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ, ২০২২ইং সাতক্ষীরায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এমপি রবির পক্ষ থেকে অন্ধ, ভূমিহীন ও ছিন্নমুল মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ বানিয়াচংয়ে মেছো বিড়ালের চারটি ছানা উদ্ধার করে ফিরিয়ে দেওয়া হলো মা বিড়ালের কাছে নৌকায় ভোট দিলে উন্নয়ন হয় ; মোস্তাকুর রহমান মফুর
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১১:২৫ অপরাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

উজিরপুরে স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ স্বামীর কারাদণ্ড

Coder Boss / ২০২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

 

জাকির হোসেন,বরিশাল:

বরিশালের উজিরপুরে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে
দায়ের করা মামলায় স্বামীকে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে দায়ের করা ঐ মামলায় পুলিশ স্বামী রুহুল আমিন হাওলাদারকে ২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবু শামীমম আজাদ আসামির উপস্থিতিতে এ দণ্ডাদেশ দিয়েছেন। দণ্ডিত রুহুল আমিন বরিশালের উজিরপুর উপজেলার কাজিসা এলাকার মৃত নুরুল ইসলাম হাওলাদারের ছেলে ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুুলিশের নায়েক পদে এসটিএফ-২ কোম্পানি, পিওএম উত্তর বিভাগে কর্মরত। তার ব্যাচ নম্বর ১৪২৮।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী আজিবর রহমান জানান,‘২০০৩ সালের ১৬ এপ্রিল রুহুল আমিন বরিশালের উজিরপুর উপজেলার হস্তিশুন্ড এলাকার সেলিনা বেগমকে বিয়ে করেন। সংসার জীবনে তাদের ৮ বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

দীর্ঘ ৮ বছর সংসার করার একপর্যায়ে রুহুল আমিন ছুটিতে বাড়ি এসে তার স্ত্রী সেলিনা বেগমের কাছে মিশনে যাবার কথা বলে ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। সেলিনা বেগম বাবার বাড়ি থেকে তাকে ১ লাখ টাকা এনে দেয়। এরপর ২০১৪ সালের ২২ নভেম্বর রুহুল আমিন ছুটিতে এসে স্ত্রী ও ছেলে ছায়েম মাহামুদকে বাকী টাকা না দেয়ায় তাদের শ্বশুড় বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।এছাড়া ২০১৫ সালের ২২ মার্চ রুহুল আমিন ছুটিতে নিজ বাড়িতে আসেন।

২৪ মার্চ বিকেলে সে তার স্ত্রীর কাছে আরও এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। টাকা না দিলে সে স্ত্রী ও ছেলেকে নিজ বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে অস্বীকার এবং স্ত্রী সেলিনা বেগমকে মারধর করে।

এ ঘটনায় ২৯ এপ্রিল উজিরপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করে সেলিনা বেগম। একই বছর ২৪ মার্চ তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শহিদুর রহমান আদালতে চার্জশিট জমা দেন। ট্রাইব্যুনাল ৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার ওই রায় দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন