আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : বিকাল ৩:২১

বার : সোমবার

ঋতু : শরৎকাল

ঘরে দুই স্ত্রী তবুও আাদিবাসী নারীকে ধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি, সুনামগঞ্জঃ-

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী রাজাই গ্রামে আদিবাসী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। আজ শনিবার সকালে ধর্ষিতা নারী বাড়ির পাশে পাহাড়ি ছড়ায় গোসল করতে গেলে এই ধর্ষনের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত একই গ্রামের আবুল কালামের ছেলে রাশিদ মিয়া (৪০) কে আটক করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ।
রাশিদ মিয়ার দুই স্ত্রী ও চারটি সন্তান রয়েছে।
ধর্ষিতা নারী ও পরিবার সুত্রে জানা যায় , উপজেলার সীমান্তবর্তী রাজাই গ্রামের ওই আদিবাসী নারী সকালে গ্রামের পাহাড়ি ছড়ায় গোসল করতে যায়। এসময় একই গ্রামের আবু কালামের ছেলে রাশিদ মিয়াও (৪০) গোসল করতে আসে। এসময় রাশিদ মিয়া আলাপের ছলে ওই নারীকে কু প্রস্তাব দেয়। এতে ওই নারী রাজি
না হলে জোরপূর্ব ছড়া সংলগ্ন জংগলে নিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। ধর্ষিতা বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়। ওই নারীর পরিবার ধর্ষণের বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও থানা পুলিশকে অবহিত করেন। স্থানীয় উত্তর বড়দল ইউনিয়ন পরিষদ
চেয়ারম্যান আবুল কাসেম বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনের সদস্য শুষমা
জাম্বিল ঘটনাটি আমাকে জানিয়েছেন। তাহিরপুর থানার এস আই শাহাদত হোসাইন
বলেন, ঘটনার সাথে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। মামলা সাপেক্ষে গ্রেফতার দেখানো হবে। এবং ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সুনামগঞ্জ
পাঠানো হবে।

তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, মৌখিক অভিযোগ পেয়েই
অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। মামলা সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category