শিরোনাম
মানুষ মানুষের জন্য, সকলে বন্যার্ত অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো উচিত…এটিএম হামিদ প্রাকৃতিক দূর্যোগে দিশেহারা সিলেট, থৈথৈ করে বাড়ছে পানি কানাইঘাটে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলের দ্বায়িত্বশীলরা পানি বিশুদ্ধ করন ট্যাবলেট নিয়ে উপজেলার বন্যাগ্রস্ত মানুষের পাশে বানিয়াচংয়ে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন সরকার বন্যার্তদের পাশে আছে ত্রাণের অভাব হবেনা— এমপি মানিক সিলেটে বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন ঘাটাইল উপজেলায় আশ্রয়ন প্রকল্পের অধীনে বরাদ্দকৃত ঘরে ফাটল ছাতকে বন্যার অবনতি,নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত উপজেলা সদরের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন গোবিন্দগঞ্জে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুর্ধ১৭ এর সেমিফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত পলাশবাড়ী‌তে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা জাতীয় গােল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের শুভ উ‌দ্বোধন
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

প্রথিতযশা রাজনীতিবিদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী’র প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী।

Satyajit Das / ১২০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১১ মার্চ, ২০২২

সত্যজিৎ দাস(স্টাফ রিপোর্টার):

মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী ১৯৫৫ সালের ৩ জানুয়ারি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের নূরপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী ও মাতা আছিয়া খানম চৌধুরী। তাঁর এমবিএ ডিগ্রি ছিল,যা তিনি যুক্তরাজ্যের একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্জন করেছিলেন। তাঁর স্ত্রী ফারজানা সামাদ চৌধুরী,এই দম্পতির ১ ছেলে। মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ছিলেন। তিনি ২০০৮ সালের নবম,২০১৪ সালের দশম ও ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে সিলেট-৩ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে ছিলেন। তিনি শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের মহাসচিব ছিলেন। ২০০৯ সালের ২৯ জানুয়ারি তিনি “১৯৭১ এর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার” প্রসঙ্গটি সংসদে উত্থাপন করেন। তিনি ২০২১ সালের ১১ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

উল্লেখ্য যে,গত বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদ ভবন প্রাঙ্গণে টিকা নেন মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী। তারপর কোনো শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছিল না। তবে টিকা নেওয়ার দুই সপ্তাহ পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। ৭ মার্চ সিলেট থেকে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। বিমানবন্দর থেকে সরাসরি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। ওই দিন রাতে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন সকালে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন তিনি। বিকালে তার ফলাফল পজিটিভ আসে। এরপর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ভেন্টিলেশনে নেওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১১ মার্চ বেলা ২টা ৪০ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী। তাঁর মরদেহ মৃত্যুর ঢাকা থেকে পরদিন (১২ মার্চ) দুপুরে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। ওই দিন সকাল থেকে বিভিন্ন স্থান থেকে এমপি’র এলাকায় মানুষের আগমন শুরু হয়। পরে বিকেল সোয়া ৫টায় ফেঞ্চুগঞ্জের কাশিম আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে লাখো মানুষের উপস্থিতিতে ফেঞ্চুগঞ্জের কাশিম আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েসের জানাযা সম্পন্ন হয়। জানাজা শেষে বাড়ির সামনে পারিবারিক কবরস্থানের তাঁকে দাফন করা হয়।

মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী (কয়েস)-এর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালনে মরহুমের পরিবার, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুবলীগ, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের উদ্যাগে পৃথকভাবে শোকসভা,দোয়া ও মিলাদ মাহফিল,খতমে কুরআন এবং শিরনি বিতরণসহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে,মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর পরিবারের পক্ষ থেকে ১১ মার্চ (শুক্রবার) বাদ ফজর থেকে ফেঞ্চুগঞ্জের নুরপুরস্ত দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী জামে মসজিদে খতমে কুরআন, বাদ জুম্মা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল, কবর জিয়ারত ও মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। পরে মসজিদে শিরনি বিতরণ করা হবে। বাদ আছর ফেঞ্চুগঞ্জ বাজার জামে মসজিদে এমপি হাবিবুর রহমান হাবিবের উদ্যাগে দোয়া মাহফিল, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুবলীগের উদ্যাগে বাদ মাগরিব কদমতলি পয়েন্ট জামে মসজিদে দোয়া মাহফিল, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে ফেঞ্চুগঞ্জ বাজারস্ত আকুল শাহ শপিং সেন্টার অফিসে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। পরদিন (১২ মার্চ) মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার সকল এতিমখানা ও মাদরাসায় শিরনি বিতরণ করা হবে। ১৩ই (রবিবার) দক্ষিণ সুরমা ও বালাগঞ্জ উপজেলার সকল এতিমখানা ও‌ মাদরাসায় শিরনি বিতরণ করা হবে। ১৪ই মার্চ (সোমবার) বিকেলে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যাগে ফেঞ্চুগঞ্জ বাজারস্ত মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী রিভারভিউ পার্কে মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। পরে বিতরণ করা হবে শিরনি।এছাড়াও মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী স্মরণে শনিবার (১২ মার্চ) বাদ যোহর দক্ষিণ সুরমার কলাবাগান লতিফিয়া হাফিজিয়া ইবতেদায়ী মাদ্রাসায় ‘ক্যাম্পেইন ফর জুয়েল আহমদ গ্রুপ’র উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, ১২ মার্চ দক্ষিণ সুরমার কুচাই ইউনিয়নের শাহ আলী রাজা পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, ১৩ মার্চ দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজার ইউনিয়নের পরগনা বাজারস্থ পাঞ্জেখানা মসজিদে পরগনা বাজার আঞ্চলিক আওয়ামী লীগের উদ্যাগে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

প্রয়াত এই ক্লিন ইমেজের নেতা ও বঙ্গবন্ধুর নীতি আদর্শের ত্যাগী সফল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব,গরিব দুঃখী অসহায়দের বন্ধু মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর ছোট ভাই লন্ডন থেকে প্রচারিত বাংলা চ্যানেল ‘চ্যানেল এস’-এর চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী জেপি, ভাতিজা লন্ডন প্রবাসী সাকিব উস সামাদ চৌধুরী ও ভাগ্না আমেরিকা প্রবাসী কমিউনিটি নেতা জুনেদ আহমদ চৌধুরী দেশে অবস্থান করে কয়েস চৌধুরীর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী যথাযথভাবে পালনের সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  

বিভাগের খবর দেখুন