শিরোনাম
একাই করেন তিনটি সরকারি চাকুরী দ্রব্যমূল্য উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে জগন্নাথপুরে জাতীয় পার্টির প্রতিবাদসভা বড়লেখার হাকালুকি হাওর পারে গৃহনির্মাণ সামগ্রী বিতরণ জামিনে বের হয়ে ফের দুই প্রতারক সহ গ্রেফতার মজিবুর রহমান। গুমান মর্দন প্রবাসী পরিষদ সংযুক্ত আরব আমিরাত গভীরভাবে শোকাহত বৃহত্তর গোলাপগঞ্জ উপজেলার মানব সেবায় নিয়োজিত হবিগঞ্জের মাধবপুরে ১০ কেজি গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার বানিয়াচংয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত বিশ্বনাথে নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন কমিটি মতবিনিময় সভা আহবায়ক কমিটি গঠন দয়ামীর ইউনিয়ন এডুকেশন ফোরাম ইউ.কে এর উদ্দ্যোগে ফ্রি ব্লাড ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৮:১৯ অপরাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

বানিয়াচংয়ে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত;স্বেচ্ছাচারীতার অভিযোগ তুলেছেন বক্তারা।

ইমদাদুল হোসেন খাঁন / ১২৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০২২

সিনিয়র সাংবাদিক (বানিয়াচং):
বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ বানিয়াচং উপজেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৩ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে বানিয়াচং বুড়া শিববাড়িতে ঐক্য পরিষদের দিনব্যাপী সম্মেলন শুরু হয় এবং সারাদিন ব্যাপি চলে বক্তব্য ও আলোচনা। 

ত্রি-বার্ষিক এ সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন করেন ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি বাবু জগদীশ চন্দ্র মোদক। সম্মেলনের প্রথম পর্বে সভাপতিত্ব করেন বানিয়াচং উপজেলা শাখার সভাপতি বাবু বিপুল ভূষন রায়। যৌথভাবে সঞ্চালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক ভানু চন্দ্র চন্দ এবং শিক্ষক সঞ্জু দাশ। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য বাবু অ্যাডভোকেট স্বরাজ রঞ্জন বিশ্বাস। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শ্রীযুক্ত বাবু আশুতোষ অধিকারী শংকর। এছাড়াও সম্মেলনে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ এবং বানিয়াচং উপজেলার নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সম্মেলনের শুরুতে জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে পতাকা উড়িয়ে এবং শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।
সম্মেলনে আলোচনা পর্ব শুরুর আগে পবিত্র গীতা থেকে পাঠ করেন বাদল ভট্টাচার্য। প্রথম পর্বের আলোচনা শেষে মধ্যাহ্নভোজের বিরতি দেওয়া হয়। সম্মেলনে দ্বিতীয় পর্বে সভাপতিত্ব করেন ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আশুতোষ অধিকারী শংকর। সম্মেলনে দিনব্যাপী বক্তব্য এবং আলোচনার পরও সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীদের মধ্যে কোনো সমঝোতা না হওয়ায় নির্বাচিত কারও নাম ঘোষনা করা হয়নি।

এদিকে বর্তমান কমিটির সভাপতি বিপুল ভূষণ রায় এবং সাধারণ সম্পাদক স্মৃতি চ্যাটার্জি কাজলের বিরুদ্ধে অনেক বক্তাই স্বেচ্ছাচারীতার অভিযোগ তুলেছেন। এতে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ বানিয়াচং উপজেলা শাখার নেতৃত্বে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। পরিষদের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে অনেক বক্তাই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বর্তমান কমিটির সভাপতি বিপুল ভূষণ রায় এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজল চ্যাটার্জীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ পেশ করেন তারা। নেতৃবৃন্দ বলেন,বর্তমান কমিটির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক উপজেলার ১৫ টি ইউনিয়নে সম্মেলন না করে নিজেদের পছন্দের লোক দিয়ে পকেট কমিটি করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন রনজয় দাশ বাপ্পী এবং প্রিয়তোষ রঞ্জন দেব। এমনকি আজকের সম্মেলনে অনেককেই নিমন্ত্রণ না করার অভিযোগ করেন তারা। আর এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা কমিটির দায়িত্বহীনতাকেও দায়ী করেছেন বক্তারা।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা শাখাকে ‘মেরুদণ্ডহীন’ বলে আখ্যায়িত করেছেন জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক বিপ্লব রায় সুজন। এসময় নেতৃবৃন্দ বলেন,যে ‘ঐক্য’ নিয়ে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ গঠিত হয়েছিল সেই ঐক্য আর নেই। আর নিজেদের এই ঐক্যহীনতার কারনেই বাংলাদেশে সংখ্যালঘুরা বিভিন্ন সময় নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন।

তাছাড়া ইদানিং সারাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর যেভাবে নির্যাতন শুরু হয়েছে তাতে সংখ্যালঘুরা এ দেশে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের হবিগঞ্জ জেলা শাখার সিনিয়র সদস্য অ্যাডভোকেট নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থ বলেন,দেশে বিভিন্ন সময়ে সংখ্যালঘুদের নির্যাতনের প্রায় ৬ হাজার মামলা হয়েছে। অথচ একটা মামলারও কোনো অগ্রগতি নেই। কোনো হামলা-মামলার বিচার হয়নি। নিজেদের গ্রুপিং এর কারণে দেশে সংখ্যালঘুরা বিভিন্ন সময় নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। কোথাও কোথাও নির্যাতনের প্রতিবাদটুকুও হচ্ছে না।

এদিকে বানিয়াচং উপজেলা শাখার সভাপতি বিপুল ভূষন রায় তার ওপর আনিত অভিযোগগুলোর সত্যতা স্বীকার করে বলেন,সম্মেলনে সবাইকে সময়মত নিমন্ত্রণ করতে না পারা এবং ইউনিয়ন কমিটিগুলো সঠিকভাবে হয়নি বলে ব্যর্থতার দায়ভার গ্রহণ করেছেন তিনি। নতুন কমিটির নেতৃবৃন্দকে সাংগঠনিক কার্যক্রম সঠিকভাবে পরিচালনা করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

উল্লেখ্য,আগামী দুই দিনের মধ্যে সকল ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পদকদের তথ্য সংগ্রহ করতে বানিয়াচং উপজেলা শাখার সভাপতি বিপুল ভূষণ রায় এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট স্মৃতি চ্যাটার্জি কাজলকে নির্দেশ দেন জেলা শাখার সভাপতি জগদীশ চন্দ্র মোদক। এছাড়াও হবিগঞ্জ থেকে শিগগিরই বানিয়াচং উপজেলা কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানান তিনি।

সিলেট নিউজ/এসডি.


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন