শিরোনাম
ছাতক শহরে আনারস প্রতীকের বিশাল মিছিল বড়লেখায় সরকার বিরোধী ক্যাডার কাজী এনামুল হকের দৌরাত্ম ছাতকে আইডিয়াল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে খাবার পানি ও সাল্যাইন বিতরণ মৌলভীবাজারে প্রিজাইডিং অফিসার সহ দুইজন গ্রেফতার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েই কামাল খসরুর বাসভবনে লিয়াকত আলী বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন, তাহিরপুর উপজেলা নির্বাচনে  আলোচিত প্রার্থী মো:আফতাব উদ্দিন জৈন্তাপুরে উৎসব মূখর পরিবেশে শান্তিপূর্ণ  ভাবে ভোট গ্রহন সম্পন্ন- বিজয়ী হলেন যারা ছাতকে সহিংসতা মুক্ত উপজেলা নির্বাচনের দাবিতে যুব ফোরামের মানববন্ধন দোয়ারাবাজারে গাঁজা ও ইয়াবাসহ তিনজন আটক শাহপরান সমাজ কল্যাণ সংস্থার কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

আসলেই কী তেলাপিয়া মাছ খাওয়া ক্ষতিকর?

Coder Boss / ৭১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০২৩

তেলাপিয়া মাছ খেতে কমবেশি সবাই পছন্দ করেন। আবার অনেকেই এ মাছ দেখলেও নাক সিঁটকান। অনেকেই বলেন, তেলাপিয়া মাছ স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

 

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এই মাছকে গারবেজ/ট্র্যাশ ফিশ বা আবর্জনা মাছ বলে ডাকেন, তবে কেন জানেন? এর প্রথম কারণ হলো, এটি শেওলা ও বিভিন্ন উচ্ছিষ্ট খাবার খেয়ে বেঁচে থাকে। সঠিকভাবে চাষ করলে তেলাপিয়া খাওয়া স্বাস্থ্যকর হতে পারে।

 

বিশেষজ্ঞদের মতে, তেলাপিয়ায় প্রোটিন, পটাশিয়াম, ভিটামিন বি-১২, ফসফরাসের মতো একাধিক অপরিহার্য উপাদান থাকে। জানা গেছে, বিশ্বের প্রায় ১২০টি দেশে সবচেয়ে বেশি চাষ করা হয় এই মাছ। তবে বেশিরভাগ অসাধু ব্যবসায়ীরা এই মাছকে অস্বাস্থ্যকর অবস্থায় বেড়ে তুলছে। ফলে পুষ্টির পরবর্তে এই মাছ খেলে শরীরে ঢুকছে নানা ক্ষতিকর পদার্থ।

 

বর্তমানে নানা ধরনের রাসায়নিক দিয়ে চাষ করা তেলাপিয়া মাছ। এমনকি নানা দূষিত জিনিস খাবার হিসেবে দেওয়ার হয় মাছকে। একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, তেলাপিয়া উৎপাদনে ব্যবহৃত মাছেদের খাদ্য হিসেবে হাঁস, শূকর বা মুরগির দেহাবশেষ থাকে।

 

তাই বেশিরভাগ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, এই মাছ খাওয়ার জন্য নিরাপদ নয়। যে রাসায়নিক ব্যবহার করা হয় তা ক্যানসারের মতো ব্যাধির ঝুঁকি অনেক গুণে বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই নিরাপদ নয় বলে মনে করা হয়।

 

বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে এই মাছে ডিবিউটিলিন ও ডাইঅক্সিন নামক মারাত্মক ক্ষতিকর রাসায়নিকের উপস্থিতি মিলেছে। ডিবিউটিলিন হলো এমন একটি রাসায়নিক, যা প্লাস্টিকের বিভিন্ন জিনিস তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

 

এটি মানবদেহে প্রবেশ করলে স্থুলতা, হাঁপানি, অ্যালার্জি’সহ নানা ধরনের বিপাকীয় রোগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তবে ডিবিউটিলিনের চেয়েও ক্ষতিকর ডাইঅক্সিন। এটি শরীরে প্রবেশ করলে ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  

বিভাগের খবর দেখুন