শিরোনাম
কুকুর,বিড়ালদের বাঁচাতে আইনি পরামর্শ এবং করনীয়;-বখতিয়ার হামিদ। ছাতকে বন্যার্তদের মাঝে যুবলীগ নেতা সাহাব উদ্দীনের ২য় ধাপে ত্রান বিতরন হলি আর্টিজান হামলার ৬ বছর;হয়নি মামলার নিষ্পত্তি। বিশিষ্ট শিল্পপতি জনাব আবু উল রশীদ এর পক্ষথেকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ করা হয় লোভ-হিংসা ও সংকির্ণ মনোভাবের ঊর্ধ্বে ওঠে মানবতার কল্যাণে কাজ করে যেতে হবে ——-সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী মাধবপুরে কৃষ্ণপুরের ব্রিজটি না হওয়াতে বিকল্প কাঠের সেতু তৈরী করে যানচলাচলে উপযোগী করছেন এলাকাবাসী জগন্নাথপুরে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আজাদ মিয়া ফরুকের পরিবারের পক্ষ থেকে ত্রান বিতরণ মৌলভীবাজার সমিতি সিলেট এর ত্রান ও নগদ অর্থ বিতরন বৃষ্টির মধ্যেও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন ইউ.কে প্রবাসী আলাউদ্দিনের পরিবার শাল্লা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ।
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১১:২৮ অপরাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

এমপি আবু জাহিরের নির্দেশে আমার হবিগঞ্জ পত্রিকা অফিসে হামলা চালিয়েছে যুবলীগ-ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা পুলিশের উপস্থিতিতেই হামলা-ভাংচুর চালিয়েছে যুবলীগ ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা

Coder Boss / ১২৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার : জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি আবু জাহিরের নির্দেশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকা অফিসে হামলা চালিয়েছে হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা। সোমবার (১৯এপ্রিল) বেলা ১ টার দিকে চিড়াকান্দিস্থ অফিসে হামলা করে তারা। সদর থানা পুলিশের ওসি মাসুক আলীর উপস্থিতিতেই এই হামলা চালানো হয় বলে জানা যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়,আবু জাহির এমপির প্রত্যক্ষ নির্দেশে দুপুর থেকেই জেলা যুবলীগের সভাপতি ও হবিগঞ্জ পৌরসভার চেয়ারম্যান আতাউর রহমান সেলিম ও জেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারি মহিবুর রহমান মাহির নেতৃত্বে নোয়াবাদ,শংকরের মুখসহ দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার অফিসের প্রবেশদ্বারে আশেপাশের বিভিন্ন পয়েন্টে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে জড়ো হয় যুবলীগ -ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। জড়ো হওয়ার একপর্যায়ে তাদের নেতৃত্বে পত্রিকা অফিসে হামলা করা উদ্দেশ্যে আসতে থাকে তারা। পথিমধ্যে পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক সুশান্ত দাস গুপ্ত’র শ্বশুড়ের বাসায় হামলা চালায়। হামলায় তার শ্বশুড়ের বাসার বিভিন্ন দরজা জানালা,আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। এমনকি বাসার পানির টেংকি ও পানির পাইপ ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়। বাসায় থাকা তার বৃদ্ধ শ্বশুড় শ্বাশুড়ি ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। আসবাবপত্র ভাঙচুর করে লুটপাট করা হয় মূল্যবান জিনিসপত্র।

এসময় দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার সম্পাদক ওই বাসার ছাদের উপর আশ্রয় নেন। সেখান থেকে তিনি তার লোকদের নিয়ে হামলার মোকাবেলা করেন। প্রায় দুই ঘন্টা ব্যাপী এই সংঘর্ষ হয়। হামলাকারীরা যাওয়ার সময় আশেপাশের প্রায় ১০ থেকে ১৫টি হিন্দু বাসা-বাড়িতে হামলা করে যুবলীগ ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা। আর নিচে থাকা যুবলীগের সভাপতি আতাউর রহমান সেলিমের নেতৃত্বে তার সাঙ্গপাঙ্গরা সম্পাদক সুশান্ত দাস গুপ্তকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। অন্যদিকে জেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারি মহিবুর রহমান মাহির নেতৃত্বে একদল উশৃঙ্খল নেতাকর্মীরা পত্রিকা অফিসে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঢুকার চেষ্টা করে।

পরে ঢুকতে না পেরে অফিসে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে তারা। এতে অফিসে থাকা দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার ৪/৫জন সাংবাদিক ইটের আঘাতে আহত হন। খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মাসুক আলীর নেৃতত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে যুবলীগ -ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিবৃত করার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে পুলিশের উপস্থিতিতেই দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকা অফিসে হামলা চালায় তারা। বর্তমানে পরিস্থিতি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশসহ র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে।
উল্লেখ্য,সম্প্রতি একটি মন্দিরের জায়গা দখল নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি আবু জাহিরকে নিয়ে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এছাড়াও দুর্নীতি নিয়ে বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রকাশ করে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ। এই সব সংবাদের জের ধরেই এমপি আবু জাহিরের নির্দেশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকা অফিসে হামলা ও সম্পাদক সুশান্ত দাস গুপ্তকে প্রাণনাশের উদ্দেশ্যে এই হামলা চালায় যুবলীগ- ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন