আজ ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ১০:৩৫

বার : সোমবার

ঋতু : হেমন্তকাল

শ্রীমঙ্গলে সাংবাদিক পরিচয়ে পংকজ নাগের চাঁদা দাবী:অডিও রেকর্ড ফাস।

মু. রিমন ইসলাম,
শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:

সাংবাদিক পরিচয়ে এক ব্যক্তিকে ব্লাকমেইল করে অর্থ দাবী করার একটি অডিও রেকর্ড শ্রীমঙ্গল উপজেলাজুড়ে তোলপার শুরু হয়েছে।

জানা গেছে,পঙ্কজ কুমার নাগ নামে এক ব্যক্তি অখ্যাত একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সাংবাদিক পরিচয়ে শ্রীমঙ্গল উপজেলার বিভিন্ন ব্যক্তি,প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ আদায় করে আসছিল।টাকা না দিলে ভুক্তভোগীর নামে সংবাদ প্রকাশ করে সমাজে হেয় করার হুমকি দিতেন।

এই কায়দায় শহরের এক ব্যক্তিকে ফোন করে তার নামে সংবাদ প্রকাশের হুমকি দিয়ে ১ হাজার টাকা দাবী করার ১ মিনিট ২৫ সেকেন্ড এর অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়ে যায়।এতে পঙ্কজ কুমার নাগ এক ভুক্তভোগীকে জানান- তার নামে অফিসে নিউজ চলে গেছে।নিউজ প্রকাশ হলে শহরে তার বদনাম রটে যাবে।নিউজ আটকাতে অফিসে টাকা দিতে হবে, নিজেরও লাগবে।সে স্থানীয় লোক,নাম কাটাতে পারবে।অডিও’র পরের অংশে ভুক্তভোগীকে উত্তেজিত হয়ে পঙ্কজ কুমার নাগকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে শোনা যায়।ওই ভুক্তভোগী ব্যক্তি নিজেকে ‘মাই মালের ( মৎস্যজীবী) পোলা পরিচয় দিয়ে পঙ্কজ কুমার নাগকে সাংবাদিকতা শিখিয়ে দেয়ার ও আইনের আশ্রয় নেয়ার হুমকি দেন।এসময় পঙ্কজ কুমার নাগ কোন উপায় না দেখে নমনীয় ভাবে লোকটিকে বোঝাতে থাকেন ১ হাজার টাকা দিলে সংবাদ থেকে তার নাম বাদ দেয়া হবে।

৩ জুন (রোববার) দুপুরে অডিও ক্লিপটি শ্রীমঙ্গল ও জেলার অনেক সংবাদকর্মীদের কাছে পৌঁছে যায়।কিন্ত তা জন সম্মুখে আসে সন্ধ্যার দিকে।অবাক করার বিষয় এটি প্রথম প্রকাশ হয় মধ্যপ্রাচ্যের একটি দেশ থেকে।সে সময় পর্যন্ত স্থানীয় সাংবাদিকরা নিজেদের ডিভাইসে কেবল আদান – প্রদানে সীমাবদ্ধ থাকে।সন্ধ্যার পর অডিও ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে সব মানুষের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।বিশেষ করে নির্ভিক গণমাধ্যম কর্মীরা কিংকর্তব্য বিমূঢ় হয়ে পরেন।নিজেদের আত্মসম্মান রক্ষায় অনেককে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র প্রতিক্রিয়ায় জানায়।কেউ কেউ পঙ্কজ কুমার নাগকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানান।

কে এই নাগ?
———————
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,পঙ্কজ কুমার নাগ শ্রীমঙ্গল শহরের একজন কুখ্যাত মাদকাসক্ত।কয়েক মাস আগে মাদক ব্যবসা বিস্তৃত করতে সাংবাদিক পরিচয় দেয়া শুরু করেন।সম্প্রতি একটি অখ্যাত অনলাইন নিউজ পোর্টালের কার্ড সংগ্রহ করে ভয়ভীতি ও ব্লাকমেইল করে সাধারণ মানুষদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।জানা গেছে, সাংবাদিকতার প্রভাব খাটিয়ে মানুষকে ফাঁদে ফেলে ‘ সাংবাদিক বানিজ্য’ করতে পঙ্কজ কুমার নাগ কয়েকজন চিহ্নিত মাদকসবীদের নিয়ে গড়ে তোলা একটি চক্র।

সমাজবিরোধী এসব অপকর্ম ছাড়াও নাগ বাহীনির বিরুদ্ধে রাস্ট্রবিরোধী কর্মকান্ড ও সমাজে দাঙ্গা সৃষ্টির উষ্কানি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে,করোনার উচ্চ সংক্রমণ ডেল্টা ছড়িয়ে পড়ায় এর মোকাবেলায় সরকার দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে।এ পরিস্থিতিতে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসন করোনায় জন সচেতনতা সৃষ্টি নানা উদ্যেগ হাতে নেয়।এ লক্ষে সবাইকে মাস্ক পরতে উদ্বুদ্ধ করতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সম্প্রতি শহরের চৌমহনায় সড়কে স্বেচ্ছাশ্রমে আল্পনা আকাঁনো হয়। এটি দেশের অনেক শীর্ষস্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ফলাও করে প্রকাশ করা হয়।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাধারণ মানুষ উপজেলা প্রশাসনের প্রশংসা করলেও নাগ ও তার সহযোগীরা ফেসবুকে সরকার বিরোধী নানা অপপ্রচার চালায়।

একটি সূত্র জানায়,এনিয়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি অভিযোগও দায়ের করা হয়।একই সাথে উপজেলা প্রশাসনের ফেসবুক থেকে নাগকে আনফ্রেন্ড করা হয়।এ নোটিফিকেশন পেয়ে বিপদ আচঁ করে নাগ সরাসরি উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর পায়ে ধরে ক্ষমা চেয়ে সে যাত্রা নিজেকে রক্ষা করতে সক্ষম হয়।

পঙ্কজ কুমার নাগ এই চক্রের মুল হোতা হলেও তার সাথে আরো ২ থেকে ৩ ব্যক্তির জড়িত থাকার খবর পাওয়া গেছে।এসব ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মাদক,চাঁদাবাজি, তদবির ও প্রতারনার অনেক অডিও ক্লিপের খোঁজ পাওয়া গেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে শ্রীমঙ্গল থানার এক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেছেন,নাগ ও তার সহযোগীদের তৎপরতার উপর নজর রাখা হচ্ছে।

শ্রীমঙ্গলের সিনিয়র সাংবাদিকরা বলেছেন ‘এ নিয়ে তারা বিব্রত।সমাজে মুখ দেখাতে পারেন না।পরিচয় দিতে অস্বস্তি লাগে।তারা মনে করেন – নাগ চক্রের রাশ এখনই টেনে না ধরলে শ্রীমঙ্গলের সাংবাদিক অঙ্গন আরো কলুষিত হয়ে পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category