আজ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৬:৪১

বার : বুধবার

ঋতু : শরৎকাল

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র উদ্ধার বড়লেখায় র‍্যাবের অভিযানে চার অপহরণকারী আটক

এম. এম আতিকুর রহমান ঃ

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় র‍্যাবের ৮ ঘন্টাব্যাপী সাঁড়াশি অভিযান শেষে জৈন্তাপুর উপজেলার শ্রীপুর চা বাগান এলাকায় অপহৃত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র শাহরিয়া আসিফকে (২০) উদ্ধার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। একই সাথে ৪ অপহরণকারীকেও আটক করা হয়েছে।

আটক চার অপহরণকারী হলো বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের সুজাউল গ্রামের মৃত আজির উদ্দিনের দুই ছেলে মো. শামীম মিয়া (৪০) ও মো. জাকির হোসেন (২৯) এবং একই উপজেলার চান্দরগুল গ্রামের রহমত উল্লাহর ছেলে মো. আব্দুল করিম ও গোয়াইনঘাট উপজেলার ছৈলাখৈল গ্রামের গুপেস সরকারের ছেলে সালসান (২০)।

লে. কর্নেল আবু মুসা মো. শরীফুল ইসলাম পিএসসি, এএসসি’র নেতৃত্বে উপ অধিনায়ক মেজর মো. শওকাতুল মোনায়েম, সিনিয়র এএসপি নাহিদ হাসান এবং মিডিয়া অফিসার এএসপি ওবাইনসহ র‍্যাব-৯ সদর কোম্পানির একটি দল অভিযান চালিয়ে বড়লেখা উপজেলার বোবারতল পাহাড়ি এলাকা থেকে শুক্রবার তাদের গ্রেফতার করে। একই সাথে ভিকটিমকেও সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে তারা।

র‍্যাব-৯ জানায়- গত ০৯ সেপ্টেম্বর লিডিং ইউনিভার্সিটির ২য় বর্ষের ছাত্র শাহরিয়া আসিফ (২০) জৈন্তাপুর থানার শ্রীপুর চাবাগান এলাকায় বেড়াতে গেলে বেশ কয়েকজন অপহরণকারী তাকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায় এবং ভিকটিমের পিতা গোয়াইনঘাটের ছৈলাখেল গ্রামের মো. সরোয়ার হোসেন ছেদু (৫০) এর কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৫০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এর প্রেক্ষিতে অপহৃত আসিফের সরোয়ার হোসেন ছেদু জৈন্তাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করলে থানা পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব এই ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে।

এর এক পর্যায়ে গত ১১ সেপ্টেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব নিশ্চিত হয় যে সংঘবদ্ধ অপহরণকারীরা বড়লেখা উপজেলার বোবারতল পাহাড়ি এলাকায় ভিকটিম শাহরিয়ার আসিফকে নিয়ে অবস্থান করছে এবং ওখান থেকেই ভিকটিমের পিতার কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৫০ লাখ টাকা দাবি করছে।

এরপর র‍্যাব-৯ এর কর্মকর্তারা অপহরণকারীদের ধরতে মুক্তিপণ দেওয়ার ফাঁদ পাতে কিন্তু অপহরণকারীরা ধরা না দিয়ে পাহাড়ি এলাকায় ভিকটিমকে নিয়ে একের পর এক স্থান পাল্টাতে থাকে। পরে ১১ সেপ্টেম্বর ভোর ৫টায় র‌্যাব সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করে ভিকটিমকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে এবং বড়লেখার বোবারতল পাহাড়ি এলাকায় ৮ঘন্টা অভিযান পরিচালনা করে ৪ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে র‍্যাব-৯ এর মিডিয়া অফিসার এএসপি ওবাইন গণমাধ্যমে জানান, গ্রেফতারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা পেশাগত অপহরণকারী বলে স্বীকার করে। তাদের সাথে আরো বেশ কজন জড়িত আছে বলেও জানায় তারা।

এছাড়া অপহৃত ভিকটিমকে উদ্ধারপূর্বক তার পিতার জিম্মায় দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গ্রেফতারকৃত আসামিদের জৈন্তাপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।। র‍্যাব-৯ তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category