আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ৭:৩৪

বার : রবিবার

ঋতু : বর্ষাকাল

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে কলারোয়ায় সাংবাদিকদের মানববন্ধন

শেখ অাবুমুছা সাতক্ষীরা থেকে

প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে বুধবার (১৯শে মে) বিকালে কলারোয়ার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে যশোর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের ধারে এক মানববন্ধন করেছে কলারোয়ার কর্মরত সাংবাদিক ও সুধি সমাজ। প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্থা ও আটকসহ দেশব্যাপী সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত মানবন্ধনে সাংবাদিকবৃন্দ রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও হেনস্থাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
সাংবাদিক এসএম জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য দেন ও উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক নেতা শিক্ষক দীপক শেঠ, আজাদুর রহমান খান চৌধুরী পলাশ, শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, প্রধান শিক্ষক রাশেদুল হাসান কামরুল, প্রভাষক আরিফ মাহমুদ, আতাউর রহমান, এমএ সাজেদ, শিক্ষক শামসুর রহমান লাল্টু, শিক্ষক শেখ শাহাজাহান আলি শাহিন, মোস্তাক আহমেদ, প্রধান শিক্ষক এমএ কাশেম, শিক্ষক মোস্তাফা হোসেন বাবলু, মোজাহিদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম লিটন, জুলফিকার আলী, ফারুক রাজ, জাহিদুল ইসলাম, আরিফ চৌধুরী, মোজাফফর হোসেন, তাজউদ্দীন আহমদ রিপন, এসএম ফারুক হোসেন, সেলিম খান, নাজমুল হোসেন, শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, আইয়ুব হোসেন, সুজাউল হক, জিয়া, রাজু রায়হানসহ কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।
মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন কলারোয়া পাবলিক ইনস্টিটিউট’র সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শেখ কামাল রেজা, সামাজিক সংগঠনের নেতা অ্যাড. আব্দুল্যাহ আল হাবিব।
এ সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে সাংবাদিকরা বলেন, প্রতিথযশা নির্ভীক সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে যেভাবে নির্যাতন করা হয়েছে সেটি নির্মম ও বর্বর। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব জেবুন্নেচ্ছা খানম সাংবাদিকের গলার টুটি চেপে ধরে হত্যাচেষ্টা করে সরকারকেই বেকায়দায় ফেলানোর অপচেষ্টা চালিয়েছেন। উপ সচিব জেবুন্নেচ্ছা খানমের নামে স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির পাহাড় গড়ে তুলেছেন। যা দুর্নীতির একটি বড় প্রমাণ। অথচ তার বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা বা শাস্তি না হয়ে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় উল্টো সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। আমরা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক দশাস্তির দাবি জানাচ্ছি।
এসময় কলারোয়া প্রেসক্লাব, রিপোর্টার্স ক্লাবসহ অন্যান্য সংগঠনের সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category