আজ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ১০:৩৬

বার : বৃহস্পতিবার

ঋতু : হেমন্তকাল

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চুয়াডাঙ্গায় পালিত হলো “কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১”।

সিলেট নিউজ ডেস্ক:

“মুজিববর্ষে পুলিশ নীতি,জনসেবা আর সম্প্রীতি” শ্লোগানকে সামনে রেখে ৩০.১০.২০২১ খ্রিঃ তারিখ শনিবার সারা দেশব্যাপী “কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১” উদযাপিত হয়। সারা দেশের সাথে একযোগে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ এবং কমিউনিটি পুলিশিং সমন্বয় কমিটি দিবসটি বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদযাপন করেছে।

“কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১” উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার ও প্রধান উপদেষ্টা কমিউনিটি পুলিশিং সমন্বয় কমিটি, চুয়াডাঙ্গা। প্রধান অতিথি বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব সোলায়মান হক জোয়াদ্দার ছেলুন, এমপি-১ মহোদয়ের উপস্থিতিতে সকাল অনুমান ০৯.৩০ ঘটিকায় চুয়াডাঙ্গা সদর থানা চত্বরের অফিসার মেসে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি উদ্বোধনের মাধ্যমে চুয়াডাঙ্গা জেলায় “কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১” উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়। পরবর্তীতে সকাল অনুমান ১০.০০ ঘটিকার সময় শহীদ হাসান চত্বরস্থ মাথাভাঙ্গা নতুন ব্রীজ হতে বেলুন, ফেস্টুন ও কবুতর অবমুক্তি শেষে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি চুয়াডাঙ্গা শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ শেষে শহরস্থ কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে গিয়ে শেষ হয়।

কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে “কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১” উপলক্ষে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন, এমপি-১, চুয়াডাঙ্গা, প্রধান আলোচক জনাব মোঃ আলী আজগার টগর, এমপি-২, চুয়াডাঙ্গা, প্রধান পৃষ্ঠপোষক জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম সরকার, জেলা প্রশাসক চুয়াডাঙ্গার পক্ষে জনাব সাজিয়া আফরিন, অতিঃ জেলা প্রশাসক (সার্বিক), বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, মেয়র, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা, জনাব মোঃ কামরুজ্জামান, আহবায়ক, কমিউনিটি পুলিশিং জেলা সমন্বয় কমিটি, চুয়াডাঙ্গাসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি, শিক্ষক, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক এবং সমাজের সর্ব স্তরের অনুমান ২৫০০ জন লোক উপস্থিত হয়। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার, চুয়াডাঙ্গা। বেলা অনুমান ১১.০০ ঘটিকার সময় পবিত্র কোরআন ও গীতা পাঠের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভা শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির গুরুত্ব ও সমাজের অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির ভুমিকা তুলে ধরেন। তারা বলেন কমিউনিটি পুলিশিং এর মাধ্যমে জনগণ এবং পুলিশের মধ্যে পারস্পরিক আস্থা, শ্রদ্ধাবোধ ও সহযোগিতার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ফলে বিভিন্ন ধরনের অপরাধ যেমন-মাদক, নারী ও শিশু নির্যাতন, পারিবারিক সহিংসতা, ইভটিজিং ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণ সহজ হয়। সমাজ থেকে মাদক, জঙ্গী, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ, সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে পুলিশের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একযোগে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
এসময় পুলিশ সুপার চুয়াডাঙ্গা বলেন “পুলিশ জনগনকে সহযোগীতা করবে, জনগনের পাশে থাকবে, জনগনের আপদ-বিপদে সব সময় কাজ করে যাবে।” কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১’ উদযাপনের মাধ্যমে জনগণ ও পুলিশের মাঝে আন্তরিকতা, সহযোগিতা, স্বতঃস্ফূর্ততা আরও বৃদ্ধি পাবে, যা আগামী দিনগুলোতে নিরাপদ ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ বিনির্মাণে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। চুয়াডাঙ্গা জেলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষাসহ সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে রুখে দিতে পুলিশকে ভয় না পেয়ে তথ্য দিয়ে সাধারন মানুষের সহযোগীতা কামনা করেন।

একই ভাবে জেলার আলমডাঙ্গা, দামুড়হুদা, জীবননগর ও দর্শনা থানায় “কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১” স্থানীয় সাধারন মানুষের উপস্থিতিতে সফল ভাবে উদযাপিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়ে ওঠা বাংলাদেশ পুলিশ কমিউনিটি পুলিশিং চর্চার মাধ্যমে জনগণের সহযোগিতায় জনপ্রত্যাশা পূরণ করে ‘জনগণের পুলিশ’ হয়ে উঠবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করে দুপুর অনুমান ১৩.০০ ঘটিকায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১ অনুষ্ঠানটি শান্তিপূর্ণ ভাবে সমাপ্ত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category