আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : রাত ৪:৩৪

বার : বৃহস্পতিবার

ঋতু : হেমন্তকাল

হবিগঞ্জের বানিয়াচঙ্গে “স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট বাস্তবায়ন” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্টিত

হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে “স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট বাস্তবায়ন” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্টিত হয়েছে।

সরকারের এসডিজি(সাসটেন্স ডেভলাপমেন্ট গোল) বাস্তবায়নের জন্য স্থানীয় পর্যায়ের টেকসই উন্নয়নের জন্য স্থানীয় প্রশাসন,জনপ্রতিনিধি,সাংবাদিক,ব্যাবসায়ীসহ সহ স্থানীয় উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাথে জড়িতদের বিভিন্ন সুপারিশের ভিত্তিতে নীতিমালা প্রনয়নের জন্য দিনব্যাপী সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

বানিয়াচং উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিট,প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহযোগীতায় সেমিনারটি অনুষ্টিত হয়েছে।

প্রধান মন্ত্রীর টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা গুলো হল-
১. দারিদ্র্য বিমোচন, ২. খাদ্য নিরাপত্তা, পুষ্টির উন্নয়ন ও কৃষির টেকসই উন্নয়ন, ৩. সকলের জন্য সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা, ৪. মানসম্পন্ন শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিতকরণ, ৫. লিঙ্গ সমতা, ৬. সুপেয় পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা,

৭. সকলের জন্য জ্বালানি বা বিদ্যুতের সহজলভ্য করা, ৮. স্থিতিশীল ও অংশগ্রহণমূলক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, পূর্ণকালীন উৎপাদনমূলক কর্মসংস্থান ও কাজের পরিবেশ, ৯. স্থিতিশীল শিল্পায়ন এবং উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করা,

১০. দেশের অভ্যন্তরে ও আন্তঃরাষ্ট্রীয়বৈষম্য হ্রাস, ১১. মানব বসতি ও শহরগুলোকে নিরাপদ ও স্থিতিশীল রাখা, ১২. সম্পদের দায়িত্বপূর্ণ ব্যবহার, ১৩. জলবায়ু বিষয়ে পদক্ষেপ, ১৪. টেকসই উন্নয়নের জন্য সাগর, মহাসাগর ও সামুদ্রিক সম্পদ সংরক্ষণ ও পরিমিত ব্যবহার নিশ্চিত করা, ১৫. ভূমির টেকসই ব্যবহার,

১৬. শান্তিপূর্ণ ও অংশ গ্রহণমূলক সমাজ, সকলের জন্য ন্যায়বিচার,সকল স্তরে কার্যকর, জবাবদিহি ও অংশগ্রহণমূলক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা, ১৭. টেকসই উন্নয়নের জন্য এ সব বাস্তবায়নের উপায় নির্ধারণ ও বৈশ্বিক অংশীদারিত্বের স্থিতিশীলতা আনা।

২৫ নভেম্বর বুধবার বানিয়াচং উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্টিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা।

ভার্চুয়ালিভাবে সেমিনারটি উদ্ধোধন করেন সিলেট বিভাগীয় কমিশনার
মোঃ মশিউর রহমান,এ সময় উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান,এডিসি মরজিনা আক্তার,বানিয়াচং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কাসেম চৌধুরী,নির্বাহী ম্যাজিস্টেট ও ফেসিলিটেটর আফিয়া আমিন পাপ্পা ও সাঈদ মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

সেমিনারে বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার অংশগ্রহনকারীদের কে দশটি গ্রুপে ভাগ করা হয়।
সুপারিশকারীদের সুপারিশমালার মধ্য থেকে গুরুত্বপূর্ন বিষয়বস্তু বাছাই করে তা বাস্তবায়ন করা হবে বলে সেমিনারে জানানো হয়।

অংশগ্রহনকারীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবুল হাদী মোঃ শাহপরান,কৃষি কর্মকর্তা মোঃ এনামুল হক,যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জাফর আহমেদ,প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম সরকার,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাশ, মুক্তিযোদ্ধা শেখ নমির আলী,প্রেসক্লাব সভাপতি মোশাহেদ মিয়া,ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল হক,গিয়াস উদ্দিন আহমেদ,ওয়ারিশ উদ্দিন,রেখাছ মিয়া,হাবিবুর রহমান,লুৎফুর রহমান,এরশাদ আলী,শাহ শওকত আরেফীন সেলিম,আনোয়ার হোসেন,আহাদ মিয়া,আব্দুল কুদ্দুছ শামীম,মোতাহের হোসেন,ফজলুর রহমান,
ব্যাবসায়ী নেতা আলহাজ্ব জয়নাল আবেদীন ও আংগুর মিয়া প্রমূখ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category