আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সময় : বিকাল ৪:৫৯

বার : সোমবার

ঋতু : শরৎকাল

আইনশৃঙ্খলা উন্নয়নে সকলের সহযোগিতা চাই কলারোয়া থানার ওসি

শেখ অাবুমুছা সাতক্ষীরাথেকে কলারোয়া থানায় সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছে ওসি মীর খায়রুল কবীর। কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হিসেবে অভিজ্ঞ ও দক্ষতায় অনন্য আলহাজ্ব মীর খারুল কবীর। যোগদানের পর থেকেই থানার পরিস্থিতি উন্নতির পথে। ওসি হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করে, তাঁর টিমকে সাথে নিয়ে মাদকমুক্ত ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে কাজ করে যাচ্ছেন। একটি সূত্রে জানায়, থানাকে দালালমুক্ত করতে তার বলিষ্ঠ ব্যবস্থাপনায় থানার যাবতীয় কার্যক্রম ফলোআপে চেষ্টা । অনেক মাদক ব্যবসায়ী এলাকা ছেড়ে আত্নগোপনে রয়েছে। বর্তমানে মাদক ব্যবসায়ীরা চরম আতঙ্কে রয়েছে । কলারোয়া উপজেলার কেঁড়াগাছি গ্রামের বাসিন্দা এক নারী নাম প্রকাশ না করার সর্তে বলেন, যে কোন সমস্যার অভিযোগপত্র দাখিল করলে তিনি সাথে সাথে তা আমলে নিয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন। ওসি এই রুপ আন্তরিকতা সেবার মন মানসিকতার প্রশংসা করে থানার সকল পুলিশ সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। এলাকার অনেক সচেতন মহল, সভা অনুষ্ঠানে প্রশংসনীয় আলোচনা করেন কলারোয়া থানার ওসির কার্যক্রমগুলো নিয়ে। কলারোয়া উপজেলার নিদর্শন স্বরুপ দাঙ্গামুক্ত, মাদকমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, বাল্যবিবাহ বন্ধ, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তিনি অগ্রণী ভুমিকায়। এদিকে সুন্দর বাসযোগ্য থানা গড়তে সচেতন মহল কলারোয়া থানার ওসির কাছে প্রত্যাশা করে। কলারোয়া থানার কর্মরত অনেক অফিসারদের সাথে কথা হলে তারা জানান, স্যার সৃজনশীল মানুষ, যোগদানের পর থেকে তিনি রাত-দিন এক করে কাজ করে যাচ্ছেন। রাত দিন তিনি কলারোয়া থানার আইন-শৃঙ্খলা বাস্তবায়নের কাজ করে। অভিযান পরিচালনা সহ থানার মামলা গুলোর তদন্ত পূর্বক আদালতে চার্জশীট প্রদানের জন্য সকল তদন্তকারী কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করেন। এব্যাপারে কলারোয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মীর খায়রুল কবীর বলেন, দেশ সেবার মন মানসিকতা নিয়ে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করে,সেই থেকে এ পর্যন্ত সততার বাস্তবায়নে কার্যক্রম চালিয়ে আসছি। সামাজিক কার্যক্রমগুলো সফল ভাবে সম্পাদন করার জন্য তিনি সচেতন মহল, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সকলের প্রতি মাদক ব্যবসায়ীদের তথ্য দিয়ে সার্বিক সহযোগিতা করার আহ্বান জানান এবং তথ্যদাতাদের নিরাপত্তার সার্থে নাম সমূহ গোপন করা হবে বলে তিনি জানান। তিনি আরোও জানান, কলারোয়া থানায় যোগদানের পর এই অল্প সময়ের মধ্যে জিআর পরোয়ানায় সিআর ও সাজাপ্রাপ্ত পরোয়ানায় মামলার আসামীদের গ্রেফতার করা হয়েছে। কলারোয়া থানা গড়তে, ধর্মীয় প্রার্থনালয়ে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ও মহল্লায় জনসচেতনা মূলক পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। তিনি এ প্রতিনিধির মাধ্যমে “দাঙ্গা ভূলে” শান্তির কলারোয়া গড়তে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category