শিরোনাম
মানুষ মানুষের জন্য, সকলে বন্যার্ত অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো উচিত…এটিএম হামিদ প্রাকৃতিক দূর্যোগে দিশেহারা সিলেট, থৈথৈ করে বাড়ছে পানি কানাইঘাটে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলের দ্বায়িত্বশীলরা পানি বিশুদ্ধ করন ট্যাবলেট নিয়ে উপজেলার বন্যাগ্রস্ত মানুষের পাশে বানিয়াচংয়ে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন সরকার বন্যার্তদের পাশে আছে ত্রাণের অভাব হবেনা— এমপি মানিক সিলেটে বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন ঘাটাইল উপজেলায় আশ্রয়ন প্রকল্পের অধীনে বরাদ্দকৃত ঘরে ফাটল ছাতকে বন্যার অবনতি,নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত উপজেলা সদরের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন গোবিন্দগঞ্জে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুর্ধ১৭ এর সেমিফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত পলাশবাড়ী‌তে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা জাতীয় গােল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের শুভ উ‌দ্বোধন
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

নাসিরনগরে রহমত আলী খুনের মামলার জট খোলতে শুরু করেছে

Coder Boss / ৯০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১

 

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ

 

অবশেষে ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার বুড়িশ্বর ইউনিয়নের বুড়িশ্বর গ্রামের মৃত ফালান ফকিরের ছেলে রহমত আলী হত্যা মামলার জট খোলতে শুরু করেছে।ব ্রাক্ষণবাড়িয়ার সুদক্ষ ও চৌকস পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় জেলা গোয়েন্দা শাখার পুলিশ পরিদর্শক শোভন কুমার সাহা খুনের মুটিভ উদ্ধার করতে কাজ শুরু করেছেন। বুধবার সকালে মামলার অন্যতম আসামী আলমগীর চৌধুরীর ছোট ভাই মোঃ আমরুল কায়েস চৌধুরীকে সিলেট থেকে গ্রেপ্তার করে নিযে আসে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক শোভন কুমার সাহা। জানা গেছে এ পর্যন্ত উক্ত মামলার তিন আসামীকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠাতে সক্ষম হয়েছে জেলা গোয়েন্দা ডিবি। জেলহাজতে থাকা অন্য আসামীরা হলেন গ্রামের মৃত শাহজাহান চৌধুরীর ছেলে রকিব চৌধুরী ও রেনু মিযার ছেলে রোমান মিয়া। জানা গেছে গত ২০ মে ২০২১ তারিখ দিবাগত রাত অনুমান ১১ ঘটিকার সময় বুড়িশ্বর চানপাড়া গ্রামের মৃত নুরুর ইসলাম চৌধুরীর ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আলমগীর চৌধুরী ও তার লোকজনে মিলে প্যাচাবাড়ির ফালান ফকিরের ছেলে মোঃ রহমত আলীকে নির্মমভাবে খুন করে। পরদিন খুনের মামলা থেকে নিজে বাচতে চতুর আলমগীর নিজে ৮ নং সাক্ষী সেজে ২২ জনকে আসামী করে নাসিরনগর থানার মামলা নং২৩, জি,আর মামলা নং ৯৭ দায়ের করে। পরবতীর্তে আলমগীর চৌধুরী খুনের সাথে জড়িত বলে বাদীর সন্দেহ হলে থানা পুলিশকে খবর দেয়। কিন্তু নাসিরনগর থানা পুলিশের এস,আই জুলুস আহমেদ খান পাঠান কোন অবস্থাতেই আলমগীরকে গ্রেপ্তার করতে রাজি হয়নি। পরবতীর্তে পুলিশের উপস্থিতিতে বাদীর লোকজন আলগীরকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করলে, পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি কালে আলমগীর চৌধুরী কিছুটা আহত হয়। পরবতীর্তে পুলিশ প্রহরায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থা থেকে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় আলমগীর। এখনো আলমগীর পলাতক রয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক শোভন কুমার সাহা জানান, আলমগীরকে ধরতে ডিবি পুলিশ সব সময় তৎপর রয়েছে। তিনি বলেন, খুব শীর্ঘ্রই এই হত্যা মামলার রহস্য উনে্¥চন হবে।

মোঃ আব্দুল হান্নান
নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।
মোবাঃ ০১৭১৭৩৫০৮৭৬।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

বিভাগের খবর দেখুন