শিরোনাম
পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন এমপি’র লেখা নতুন বই প্রকাশ। auto share done অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার হারালেন ‘সোমা’। ঘাটাইল ট্রাফিক আইন সম্পর্কে সক্ষমতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ সাতক্ষীরার কলারোয়া সীমান্ত থেকে এক অস্ত্র ব্যবসায়ী আটক ইদের আগে শ্রমিকদের বেতন- বোনাস পরিশোধের দাবিতে বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের মিছিল সমাবেশ আহঃ যেনো ফুটন্ত গোলাপের পাপড়ি যেদিন বিএনপি’র নেতাকর্মীরা ভোট দিতে পারবেন,সেদিন বিএনপি নির্বাচনে যাবে-গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। কিশোরগঞ্জের পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিললো ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা কুকুর,বিড়ালদের বাঁচাতে আইনি পরামর্শ এবং করনীয়;-বখতিয়ার হামিদ।
মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন
Notice :
Wellcome to our website...

কেশবপুরে আল-আমিন মডেল একাডেমি শীর্ষ স্থানে

Coder Boss / ২০০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রাকিবুল হাসান সুমন,যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ পেন স্কলারশীপ এসোসিয়েশন যশোরের আওতায় উন্মুক্ত বৃত্তি পরীক্ষার ২০১৯ সালে বৃত্তি প্রাপ্ত স্কুলের মধ্যে কেশবপুরে আল-আমিন মডেল একাডেমি শীর্ষ স্থানে রয়েছে। গত (৩ সেপ্টেম্বর) বৃহস্পতিবার ওপেন স্কলারশীপ এসোসিয়েশন আওতায় উন্মুক্ত বৃত্তি পরীক্ষার ২০১৯ সালে বৃত্তি প্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয়েছে ৷ উক্ত পরীক্ষায় আলামিন মডেল একাডেমি থেকে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণী থেকে মোট ৫৪ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পেয়েছে ৷ উক্ত বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ২২ জন এবং সাধারণ গ্রেডে ৩২ জন ৷

আলামিন মডেল একাডেমী স্কুলের শিক্ষার্থী অান্তরা লাবিবা ওপেন স্কলারশীপ এসোসিয়েশন যশোরের আওতায় উন্মুক্ত বৃত্তি পরীক্ষায় যশোর জেলার মধ্যে সর্বোচ্চ (৫৯৪ নম্বর) পেয়ে প্রথম স্থান অধিকার করেছে ৷

আল-আমিন মডেল একাডেমী স্কুলের নির্বাহী পরিচালক বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী মোঃ আব্দুল গফুর গাজী বলেন, ২০০১ সালে স্কুলের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও এ প্রতিষ্ঠানের পরিশ্রমই শিক্ষক/শিক্ষিকা ও কর্মীদের সহযোগিতায় কেশবপুর তথা যশোর জেলার প্রাথমিক শিক্ষায় এ প্রতিষ্ঠানটি যুগান্তরকারী সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে ৷ ২০০৬ সালের প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর খুলনা অঞ্চল খুলনা কর্তৃক প্রাপ্ত স্থানীয় রেজিস্ট্রেশন লাভের পর থেকে প্রতিবছর এই স্কুল থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী প্রাথমিক বৃত্তি লাভ করে আসছে এ ধারাবাহিকতায় ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে P.E.C পরীক্ষার ফলাফলে প্রতিষ্ঠানটি যশোর জেলার প্রথম স্থান অধিকার করেছে ৷

বিশ্ব মহামারী কোভিট-১৯ এর প্রাদুভাবে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার কোনো প্রকার ক্ষতি না হয় তার জন্য প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত প্রায় ৬৫০ শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে ও শিক্ষার্থীদের পড়ার টেবিলে রাখতে শিক্ষার্থীদের বাড়িতে Home Exam এর ব্যবস্থা করা হয়েছে ৷ প্রতিষ্ঠানের সফলতার জন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ৷

এ প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ বাবু সুমন কুমার দাস বলেন, নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল গফুর গাজীর কথার সাথে আমি সহমত পোষণ করে বলেন শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য সকল প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ৷

উক্ত প্রতিষ্ঠানের সহকারি শিক্ষক রাকিব আহমেদ সোহেল বলেন, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রদান করাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য ৷ তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান উন্নয়ন করতে আমরা সর্বদাই চেষ্টা করব ৷


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Registration Form

[user_registration_form id=”154″]

পুরাতন সংবাদ দেখুন

বিভাগের খবর দেখুন