আজ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সময় : সকাল ১০:৪৯

বার : বৃহস্পতিবার

ঋতু : হেমন্তকাল

কেশবপুরে আসন্ন পৌর নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে ৪নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর আফজাল হোসেন বাবু

 

রাকিবুল হাসান সুমনঃ

যশোরের কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক হয়নি এখনও। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ডিসেম্বর হতে পারে কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন। আর এরই মধ্যে পৌর এলাকায় নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। সব জায়গায় আলোচনায় সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

কেশবপুর পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন বর্তমান কাউন্সিলর আফজাল হোসেন বাবু, আওয়ামীলীগ সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ নেতা ও ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী সাবেক কাউন্সিলর কুতুব উদ্দিন বিশ্বাস, যুবনেতা হেলাল উদ্দিন, যুব নেতা ওলিয়ার রহমান উজ্জল। এলাকাবাসীর সাথে আলাপকালে জানা গেছে দলমত নির্বিশেষে জনপ্রিয়তার শীর্ষে আফজাল হোসেন বাবু। করোনা কালীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, মসজিদে মাইক, কার্পেট , খাটিয়া বিতরণ, ঈদে সেমাই, চিনি ও আর্থিক সাহায্য, হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের আর্থিক সহায়তা, কখনও নিজের হাতে কবর খুঁড়েছেন, বাজারের বিভিন্ন রাস্তা সংস্কার ও নতুন রাস্তা তৈরি। সব কাজে বাবুর সাহায্য করে চলেছেন।

মহামারি করোনাকালে প্রায় দেড় হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন বলে জানান শান্তি পাড়ার বাবু। কেশবপুর কলেজ পাড়ার সূত্রে জানা গেছে কেশবপুর সরকারি কলেজ মসজিদে মাইক সেট,কার্পেট ও খাটিয়া ক্রয় করে দেন। আলতাপোল বিশ্বাস পাড়ার ফতেপুর মোড়ের মসজিদে ৩ টা এসি, অজুখানা,খাটিয়া ও কার্পেটের ক্রয়ের নগদ অর্থ প্রদান বলে জানান সবুজ। চারআনি বাজারে মসজিদের মুচ্ছালি মেহের আলী বিশ্বাস জানান বাবু চারানি বাজার মসজিদে একটা এসি ও খাটিয়া প্রদান করেছেন। ডাক্তার খানা মসজিদের মুয়াজ্জিন মাওলানা শহিদুল ইসলাম বলেন এ মসজিদে বাবু ভাই খাটিয়া ও টাইলস প্রদান করেছেন।

নাগরিক ফোরাম মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর আফজাল হোসেন বাবু জানান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে একটি এসি ও খাটিয়ার জন্যে অর্থ প্রদান করেন, কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাবলিক জামাতের জন্যে গ্যাস সিলিন্ডার ও গ্যাসের চুলা প্রদান করেন, কেশবপুর কেন্দ্রীয় কবরস্থান মসজিদে অর্থ প্রদান করেছেন, কেশবপুর মিফ্তাহুল উলুম মাদ্রাসাই অর্থ প্রদান করেছেন,কেশবপুর ফাযিল মাদ্রাসার ছাদের কাজের জন্যে অর্থ প্রদান করেছেন, কেশবপুর এতিমখানায় ছাত্র ছাত্রী দের ঈদের নতুন কাপড় বিতারন করেছেন,কেশবপুর ঋষি পাড়ায় কালি মন্দিরে অর্থ প্রদান করেছেন, কেশবপুরে বন্যর চলাকালীন বন্যার্থদের খাদ্য, বস্ত্র চিকিৎসা ও অর্থ প্রদান করেছেন, করোনা মহামারিতে লকডাউন চলাকালিন সময়ে দুই ধাপে ১৪০০ পরিবারে খাদ্য ও অর্থ প্রদান করেন।

সবথেকে আলোচিত হয়েছেন আনন্দ ভ্রমণ অনুষ্ঠান করে। কেশবপুর থেকে ১৭ গাড়ি নারী পুরুষ নিয়ে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাড়ি গোপালগঞ্জ এর টুঙ্গিপাড়ায় পিকনিকে নিয়ে যান। সব মিলিয়ে তিনি আগামী আসন্ন পৌর নির্বাচনে আবারও জয়ের আশাবাদী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category